প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

রিমান্ডে থেকেও ‘ইয়াবা চাইছেন’ আরিফুল

55
রিমান্ডে থেকেও ‘ইয়াবা চাইছেন’ আরিফুল
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

নভেল করো’নাভাই’রাস (কোভিড ১৯) পরীক্ষায় প্রতারণার অ’ভিযোগ গ্রে’ফতার হয়েছিলেন ওভাল গ্রুপের প্রতিষ্ঠান জেকেজি হেলথ কেয়ারের প্রধান নির্বাহী (সিইও) আরিফুল চৌধুরী। এ সংক্রান্ত মা’মলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার রি’মান্ডও মঞ্জুর করেছেন আ’দালত।

সেই রি’মান্ডে পু’লিশের সঙ্গে ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করে যাচ্ছেন ওভাল গ্রুপের আরিফুল। পু’লিশের কাছে মা’দকদ্রব্য ইয়াবাও চেয়েছেন গ্রে’ফতার হওয়া জেকেজি হেলথকেয়ার নামে পরিচিত প্রতিষ্ঠানের এই সিইও।

শুক্রবার (২৭ জুন) পু’লিশের সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, থা’নার হাজতখানায় বসেও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করেন ওভাল গ্রুপের প্রতিষ্ঠান জেকেজি হেলথকেয়ারের প্রধান নির্বাহী কর্মক’র্তা আরিফুল হক চৌধুরী। হাজতখানায় থাকা অন্য আ’সামিদের সঙ্গেও খা’রাপ ব্যবহার করেন। হাজতখানার লাইট ভেঙে ফেলেন। ছিড়ে ফেলেন সিসি ক্যামেরার তার। পু’লিশের কাছে তিনি মা’দকদ্রব্য ইয়াবাও চেয়েছেন।

সূত্র জানায়, আ’ট’কের পর থেকেই নানাভাবে পু’লিশের সঙ্গে খা’রাপ ব্যবহার করেন আরিফুল চৌধুরী। তাকে ছাড়িয়ে নেওয়ার জন্য কয়েকটি গাড়ি করে আসে তার কর্মীরা। পু’লিশ কঠোর অবস্থানে থাকায় তারা সুবিধা করতে পারেনি।

সূত্র আরও জানায়, খা’রাপ ব্যবহার করলেও সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এই মা’মলা ত’দন্ত করছে পু’লিশ। ইতিমধ্যেই ১৬৪ ধারায় জবানব’ন্দি দিয়েছেন হু’মায়ুন নামে জেকেজির এক কর্মক’র্তা। নভেল করো’নাভাই’রাস (কোভিড-১৯) জাল সনদ বানানো, নমুনা সংগ্রহ করে তা ফেলে দেওয়া ও বাসায় গিয়ে অ’নৈতিকভাবে নমুনা সংগ্রহ করার তথ্য তিনি এরইমধ্যে স্বীকার করেছেন।

জেকেজির আরেক কর্মক’র্তা সাঈদ চৌধুরী আরিফুল হকের মা’দকাসক্ত হওয়ার কথা স্বীকার করেছে জানিয়ে সূত্র বলে, আম’রা অ’ভিযানে গিয়ে জেকেজি হেলথ কেয়ারের কার্যালয়ে করো’না সনদ জাল করার বিভিন্নরকম প্রামাণিক দলিল ছাড়াও ইয়াবা খাওয়ার সরঞ্জামাদি পাই। তার আচরণ এতটাই ঔদ্ধত্যপূর্ণ যে তার সঙ্গে সেলে যদি কাউকে রাখা হয় তবে তার সঙ্গেও খা’রাপ আচরণ করে।

সূত্র জানায়, সেলে একদিন তিনি অ’সুস্থবোধ করার কথা বলেন। আম’রা সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসার ব্যবস্থাও করি। তিনি ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করলেও আম’রা মা’মলার ত’দন্তের স্বার্থে কাজ করে যাচ্ছি। আর তাই তিনি আসলে কী’ করছেন বা কার ধমক দিচ্ছেন সেটা আমাদের কাছে মুখ্য না।

এ বিষয়ে তেজগাঁও জোনের উপ-পু’লিশ কমিশনার (ডিসি) হারুন অর রশীদ বলেন, ‘আম’রা যাদের প্রথমে আ’ট’ক করি তারা বাসায় গিয়ে অ’নৈতিকভাবে নমুনা সংগ্রহ করার বিষয়টি স্বীকার করে। এ ব্যবসা করতে গিয়ে তারা যে করো’নার জাল সনদ বানাতো তাও স্বীকার করে। তারা এ বিষয়ে ১৬৪ ধারায় জবানব’ন্দি দিয়েছে। তারা বলে আরিফুল হক চৌধুরীর অফিসে তারা গ্রাফিক্সের কাজ করত। সেখান থেকেই তারা জাল সনদ বানাতো।’

তিনি বলেন, `তাদের আ’ট’ক করার পর থেকেই ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করতে থাকে। প্রথমে ছয় থেকে সাতটা মাইক্রোবাস এসে তারা সিনক্রিয়েট করার চেষ্টা করে। অ’প’রাধী তো অ’প’রাধীই। তাই এসব বিষয় আম’রা তেমন গুরত্ব দিচ্ছি না। তারা যে ধরনের প্রতারণা করেছে সেটি নিয়েই আম’রা কাজ করে যাচ্ছি। আর এজন্য তাদের আম’রা রি’মান্ডে নেওয়ার জন্য আবেদন করি। সেই রি’মান্ডে এসেও আরিফুল হক চৌধুরী হাজতখানার লাইট ভেঙে ফেলে, সিসি টিভি ভেঙে ফেলেছে। তাও আম’রা ধৈর্য্যের পরিচয় দিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। এখন রি’মান্ড চলছে।’

ত’দন্তের স্বার্থে ইয়াবা চাওয়ার বিষয়ে কোনো মন্তব্য না করলেও হারুন অর রশীদ বলেন, ‘যেহেতু এটা একটা ত’দন্তাধীন বিষয় তাই এই মুহূর্তে মন্তব্য করা ঠিক হবে না। তবে সে মা’দকাসক্ত এ বিষয়টি তার এক সহকর্মী স্বীকার করেছে।’

তিনি বলেন, ‘তারা করো’না পরীক্ষা করবে বলে অনেকের কাছ থেকে ল্যাপটপ, কম্পিউটার নিয়েছে। সেগুলো আর ফেরত দিচ্ছে না। তারাও আমাদের কাছে বিচার দিয়েছে। আম’রা সেগুলো নিয়েও কাজ করছি, ত’দন্ত করে যাচ্ছি।’

জেকেজি হেলথকেয়ারের এই অ’নৈতিক কাজে যাদের যাদের বিষয়ে অ’ভিযোগ পাওয়া হবে তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও জানান হারুন অর রশীদ।

উল্লেখ্য, ২৩ জুন জেকেজি হেলথ কেয়ারের সিইও আরিফুল হক চৌধুরী সহ আরও পাঁচজনকে আ’ট’ক করে পু’লিশ। ২৪ জুন মা’মলার ত’দন্ত কর্মক’র্তা তেঁজগাও থা’নার এসআই দেওয়ান মো. সবুর আ’সামিদের আ’দালতে হাজির করেন। দুই আ’সামি স্বেচ্ছায় জবানব’ন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড এবং অ’পর চার আ’সামির ১০ দিন করে রি’মান্ড আবেদন করেন ত’দন্ত কর্মক’র্তা।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মইনুল ইস’লামের আ’দালতে হু’মায়ুন কবির এবং তার স্ত্রী’ তানজীনা পাটোয়ারী জবানব’ন্দি প্রদান করেন। এরপর তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরেক মেট্টোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুল ইস’লাম অ’পর চার আ’সামির রি’মান্ডের আদেশ দেন। রি’মান্ডে যাওয়া আ’সামিরা হলেন- ওভাল গ্রুপের চেয়ারম্যান ও জেকেজির সিইও আরিফুল হক চৌধুরী, সাঈদ চৌধুরী, বিপ্লব দাস ও মামুনুর রশীদ। সুত্র: সারাবাংলা

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 11
    Shares