প্রচ্ছদ বাংলাদেশ বিভাগ

ইভটিজিং এর প্রতিবাদে মেয়েটি প্রচণ্ড সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে ( ভিডিও )

149
ছবি : সংগৃহীত
পড়া যাবে: < 1 minute

সাধারণত ছেলেরা মেয়েদের ইভটিজিং করলে মেয়েরা মুখ বুজে তা সহ্য করে চলে আসে। কিস্তু এবার অন্যান্য এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করল সিলেটের মৌলভীবাজারের সাহসী মেয়ে ফাতেমা আক্তার অ্যানি। রাস্তায় বখাটে এক ছেলে অ্যানিকে বিশ্রী ভাষায় টিজ করে এবং তার ছবিও তোলে। এরপর অ্যানি ছেলেটির হাতের মোবাইল কেড়ে নেয় এবং তাকে চড়থাপ্পড় মারতে মারতে শার্টের কলার ধরে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সুহেল আহমেদ জানান, মেয়েটি প্রচণ্ড সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছে এভাবেই সমাজের প্রতিটি মেয়ে যদি বখাটেদের প্রতিবাদ করে তবে ইভটিজিং দ্রুতই বন্ধ হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন:  সিলেটে বিভিন্ন থানার ওসি ও পদস্থ কর্মকর্তাদের মধ্যে বদলি আতঙ্ক

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে মৌলভীবাজার পৌর পার্কে মায়ের সঙ্গে ফুচকা খাচ্ছিল অ্যানি। এসময় বখাটে আবদুর রহমান জিসান অ্যানিকে বিশ্রী ভাষায় টিজ করে এবং তার ছবিও তোলে। একপর্যায়ে মেয়েটি উঠে এসে ছেলেটির হাতের মোবাইল কেড়ে নেয় এবং তাকে চড়থাপ্পড় মারতে মারতে শার্টের কলার ধরে টেনেহিঁচড়ে নিয়ে আসে।

এ সময় অন্য বড় ভাইদের দোহাই দিলে মেয়েটি উল্টা চ্যালেঞ্জ করে বলে ‘তোর বাপ কে নিয়ে আয়, সে আমাকে কী করবে?’ তৎক্ষণাৎ ওই বখাটের মোবাইল ফোনটিও ভেঙে ফেলে অ্যানি।

আরও পড়ুন:  ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় স্ত্রীর সামনে স্বামীকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে জখম

অ্যানি মৌলভীবাজার দি ফ্লাওয়ার্স কেজি স্কুল অ্যান্ড কলেজের ১০ম শ্রেণীর ছাত্রী। এদিকে, ফ্লাওয়ার্স কেজির একজন শিক্ষক ভিডিও দেখে মেয়েটির পরিচয় নিশ্চিত করেছেন এবং বখাটে ছেলেটির নাম আবদুর রহমান জিসান বলেও জানিয়েছেন।

ভিডিও টি  দেখুন এখানে

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি