প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

ইয়াবা দিয়ে দুই এতিমকে ফাঁ’সাতে গিয়ে গণপ্রতিরোধের মুখে ডিবি পু’লিশ

49
ইয়াবা দিয়ে দুই এতিমকে ফাঁ'সাতে গিয়ে গণপ্রতিরোধের মুখে ডিবি পু'লিশ
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

মাদারীপুরের শি’বচরে জে’লার গোয়েন্দা পু’লিশের (ডিবি) হাতে নি’র্যাতনের শিকার হয়েছে এতিম দুই যুবক। মা’দক দিয়ে ফাঁ’সাতে গিয়ে ব্যর্থ হয়ে এ নি’র্যাতন করা হয়েছে বলে অ’ভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার (০৩ জুলাই) দুপুর ২টার দিকে শি’বচর উপজে’লার সন্ন্যাসীরচর ইউনিয়নের কাজীকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নি’র্যাতনের শিকার দুই যুবক হলেন- মাদারীপুরের শি’বচর উপজে’লার সন্ন্যাসীরচর ইউনিয়নের কাজীকান্দি গ্রামের মৃ’ত সামচুউদ্দিন হাওলাদারের আলী হোসেন (২৮) ও খুলনার জে’লার রূপশা উপজে’লার লবনচো’রা গ্রামের নজরুল ইস’লাম ছে’লে রুবেল হোসেন (২৪)। আলী রাজধানী ঢাকায় বাসগাড়ি চালায় এবং রুবেল তার সহযোগি। করো’নায় কাজ না থাকায় তারা দুইজনে বেশ কিছুদিন ধরে মাদারীপুরে গ্রামের বাড়ি আসেন।

ভুক্তভোগী ও প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন জানান, শুক্রবার (৩ জুলাই) দুপুরে শি’বচরের সন্ন্যাসীরচর ইউনিয়নের কাজীকান্দি এলাকায় চায়ের দোকানে বসে আড্ডা দিচ্ছিল আলী হোসেন ও রুবেল। হঠাৎ সেখানে হানা দেয় মাদারীপুর জে’লা গোয়েন্দা পু’লিশের এএসআই আল আমিন খন্দকার ও এএসআই শাহীনসহ দুইজন কনস্টেবল।

পরে আলী হোসেন ও রুবেলের দেহে তল্লাসী চালায় ডিবি পু’লিশের সদস্যরা। তল্লা’শি করে কিছু না পেয়ে ইয়াবা ও গাঁজার ছোট ছোট দুটি প্যাকেট হাতে ধরিয়ে ফাঁ’সাতে চান ডিবির ওই চার সদস্য। পরবর্তীতে আলী হোসেনের পটেকে থাকা গাড়ির ড্রাইভিং লাইসেন্স নিয়ে তা ভেঙ্গে ফেলে এএসআই আল আমিন তার সহযোগিরা।

এতেও ক্ষান্ত হননি গোয়েন্দা পু’লিশের সদস্যরা। পরে আলী ও রুবেলকে মাটিতে ফেলে পা দিয়ে লাথির সঙ্গে কিল ঘুষি দেন তারা। একপর্যায়ে ওই দুই যুবকের চি’ৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে স্থানীয়দের তোপের মুখে পড়ে তা ব্যর্থ হয়। পরবর্তীতে সেখান থেকে ডিবির চার সদস্য চলে আসেন।

ভুক্তভোগী আলী হোসেন অ’ভিযোগ করে বলেন, করো’নার মধ্যে কাজ হারিয়ে গ্রামের বাড়ি চলে আসি। কিন্তু শুক্রবার মাদারীপুর থেকে কয়েকজন ডিবি পু’লিশ এসে অকারণেই আমাকে ও আমা’র সহযোগীকে পি’টিয়ে গুরুতর আ’হত করে। তারা মা’দক দিয়ে আমাদের ফাঁ’সাতে চেয়েছিল। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে চলে যান তারা। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি।

আরেক ভুক্তভোগী রুবেল অ’ভিযোগ করেন, তারা যখন আমাদের মাটিতে ফেলে পা দিয়ে লাথি দিচ্ছে, তখন আম’রা বলেছিলাম আমাদের অ’প’রাধ কি? যদি কোন অ’প’রাধ থাকে তাহলে ধরে নিয়ে যান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আরও বেশি পে’টানো শুরু করে তারা।

এদিকে অ’ভিযু’ক্ত ডিবির এএসআই আল আমিন খন্দকার দাবি করেন, এক মা’দক ব্যবসায়ীকে ধরতে গিয়ে তারা ব্যর্থ হন। পরে তার সহযোগী আলী ও রুবেলকে নিয়ে ওই মা’দক ব্যবসায়ীকে খুঁজতে থাকেন। একপর্যায়ে মা’দক ব্যবসায়ীকে না পাওয়া গেলে আলী ও রুবেলকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরবর্তীতে তাদের ভ’য়-ভীতি দেখিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়। কিন্তু তাদের শরীরে কোন আ’ঘাত করা হয়নি।

মাদারীপুর জে’লা গোয়েন্দা পু’লিশের ভা’রপ্রাপ্ত কর্মক’র্তা (পরিদর্শক) আল মামুন বলেন, ঘটনাটি জানা নেই। তবে, শুক্রবার শি’বচর উপজে’লায় ডিবির ওই চার সদস্য অ’ভিযানে গিয়েছিল।

জে’লার গোয়েন্দা পু’লিশের মুখপাত্র ও মাদারীপুরের অ’তিরিক্ত পু’লিশ সুপার (অ’প’রাধ ও প্রশাসন) মো. আব্দুল হান্নান জানান, অকারণে কাউকে মা’রধর করা পু’লিশের ধ’র্মে নেই। তবে, শি’বচরে এমন ঘটনা ঘটেছে আমা’র জানা নেই। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে, ডিবির কোন অফিসার অন্যায় কিছু করলে কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। ভুক্তভোগী ওই দুই যুবক অ’ভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ ব্যাপারে জানতে মাদারীপুরের পু’লিশ সুপার মোহাম্ম’দ মাহবুব হাসানকে একাধিকবার কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি। সূত্র : সময় নিউজ।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 178
    Shares