প্রচ্ছদ এক্সক্লুসিভ

মসজিদের ভেতর দিয়ে পদ্মার তী’ব্র স্রোত বয়ে গেলেও দাঁড়িয়ে আছে মসজিদটি

35
মসজিদের ভেতর দিয়ে পদ্মার তী’ব্র স্রোত বয়ে গেলেও দাঁড়িয়ে আছে মসজিদটি
পড়া যাবে: < 1 minute

মুন্সিগঞ্জ থেকে : উজান হতে নেমে আসা ঢলের পানির তীব্র স্রো’ত মুন্সিগঞ্জ জেলার টঙ্গিবাড়ী উপজেলার পদ্মা নদী দিয়ে বয়ে যাচ্ছে। ফলে
টঙ্গিবাড়ী উপজেলার নতুন নতুন এলাকা প্রতিনিয়ত পানিতে তলিয়ে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে বৃদ্ধি পেয়েছে পদ্মা নদীর তীর অঞ্চলে ভা’ঙন।

টঙ্গিবাড়ী উপজেলার পাঁচগাও, হাসাইল, কামাড়খাড়া দিঘিরপাড় ইউনিয়নের ৭ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে পদ্মা নদীতে ভা’ঙন দেখা দিয়েছে। টঙ্গিবাড়ী উপজেলার হাইয়ার পার এলাকায় গিয়ে দেখা গেছে, হাইয়ারপাড় জামে মসজিদটির ৮০ ভাগ এলাকা পদ্মা নদীর মধ্যে চলে গেলেও

মসজিদটি এখনো দাঁড়িয়ে আছে। মসজিদের ফ্লোরের অনেক অংশ নদীতে বি’লীন হয়ে গেছে। মসজিদের ভেতর দিয়ে তী’ব্র গতিতে স্রোত প্রবাহিত হচ্ছে। যেকোনো মুহূর্তে মসজিদটি পদ্মা নদীতে বিলী’ন হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন:  মাঝনদীতে জন্ম নিয়েই সুখবর পেল শিশু

ওই এলাকার আবুল সেখ (৭০) বলেন, জন্মের পর হতেই দেখছি এখানে একটি মাদরাসা ও মসজিদ ছিল। আমার পূর্ব পুরুষরাও এ মসজিদে নামাজ আদায় করতেন। মসজিদটি অনেক সুন্দর করে আমরা বানাইছিলাম। নদীতে ভাই’ঙা লইয়া যাচ্ছে এখন একটা ছাপড়া তুইলা নামাজ

পরতাছি। মো. বিল্লাল হোসেন (৬০) জানান, রোজার মধ্যেও মসজিদে তারাবির নামাজ পড়ছি। কিন্তু কয়েক দিন যাবৎ নদী ভা’ঙন বৃদ্ধি পাওয়ায় মসজিদটি ভে’ঙে যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে টঙ্গিবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাসিনা আক্তার জানান, ভা’ঙন রো’ধে ১৮০ মিটার বাঁধ বালু ভর্তি জিএ ব্যাগ ফেলে বাঁধ নির্মাণ করছে পানি উন্নায়ন বোর্ড। আমরা ভা’ঙনকবলিত স্থানগুলো একাধিকবার পরিদ’র্শন করেছি এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহি’ত করেছি

আরও পড়ুন:  নিজেকে জমিদার ঘোষণা করে সুন্দরবনের মালিকানা দাবি সামাদের

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares