প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

আস্ত ছাগল খেয়ে পেট ফুলে ঢোল অজগরের, গলায় পড়ল দড়ি!

22
আস্ত ছাগল খেয়ে পেট ফুলে ঢোল অজগরের, গলায় পড়ল দড়ি!

পড়া যাবে: < 1 minute

জঙ্গল থেকে বেরিয়ে লোকালয়ে এসে আস্ত ছাগল খেয়ে ফেলেছে অজগর। গ্রামবাসীও ছাড়ার পাত্র নয়।

প্রতিবেশীর ছাগল খেয়ে বিনা বাধায় অজগরকে ফিরে যেতে দেয়ার পাত্র নন তারাও। সাপটিকে আর জঙ্গলে ফিরতে দেননি তারা। উৎসুক জনতা মিলে দড়ি দিয়ে সাপটির গলায় ফাঁ’স লাগিয়ে দেন।

আস্ত ছাগল খেয়ে নড়তে না পারা সাপটিও এতে বিড়ম্বনায় পড়ে যায়। ফুঁসফাঁ’স করলেও একদিকে পেটে ছাগলের ভা’র, অন্যদিকে গলায় লাগানো ফাঁ’স। নিরূপায় হয়ে জনগণের বিনোদনের প্রা’ণীতে পরিণত হয় সাপটি।

ছাগল খেয়ে ফেললেও সাপটিকে না মে’রে বন্যপ্রা’ণী সংরক্ষণ কর্মীদের খবর দেন স্থানীয়রা। বন্যপ্রা’ণী সংরক্ষণ বিভাগের কর্মীরা এসে অজগরটি ট্রাকে তুলে নিয়ে যান। ছাগল খাওয়ার অ’প’রাধে এরকম বিপদে ফেলে দেয়ার জন্য বিদায় বেলায় একটু রাগও দেখায় সাপটি।

ঘটনাটি ঘটেছে ভা’রতের পশ্চিমবঙ্গের জলপাইগুড়ির পাঙা বটতলা ইকোসিটি এলাকার একটি গ্রামে। রবিবার বিকেলে স্থানীয় এক বাসিন্দার একটি ছাগল হারিয়ে যায়। আজ সকালে এলাকাবাী ছাগলটিকে খুঁজতে খুঁজতে পাঙা বটতলা এলাকার একটি চা বাগানে আসে। সেখানে এসে গ্রামবাসীরা দেখতে পান একটি বিশাল আকৃতির অজগর। অজগরটির পেট ফুলে ঢোল! সেটি নড়তে পারছে না। গ্রামবাসীরা বুঝতে পারেন, অজগরটি-ই ছাগলটিকে খেয়েছে। চা-বাগানে অজগর দেখে চি’ৎকার জুড়ে দেন তারা। চি’ৎকার চেঁচামেচি শুনে ছুটে আসে আরো গ্রামবাসী।

এরপর অজগরটিকে বেঁধে রেখে বেলাকোবা রেঞ্জ অফিসে খবর দেন তারা। খবর পেয়ে অজগর উ’দ্ধারে আসেন বেলাকোবার রেঞ্জার সঞ্জয় দত্ত ও তার টিম। এদিকে এত বড় সাপ দেখতে এলাকায় প্রচুর ভিড় জমে যায়।

অজগরটিকে উ’দ্ধার করে রেঞ্জ অফিসে নিয়ে আসেন সঞ্জয় দত্তরা। এটি একটি ইন্ডিয়ান রক পাইথন বলে জানিয়েছেন সঞ্জয় দত্ত। তিনি বলেন, সম্পূর্ণ সুস্থ আছে আজগরটি। সেটিকে বৈকণ্ঠপুরের গভীর জঙ্গলে ছেড়ে দিয়ে আসা হয়েছে।

সূত্র- জি নিউজ।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন banglanewsmagazine আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

  • 4
    Shares