প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

না.গঞ্জের ফতুল্লায় জলাবদ্ধতায় পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ

20
না.গঞ্জের ফতুল্লায় জলাবদ্ধতায় পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ
পড়া যাবে: < 1 minute

প্রতিদিনই ডাইংয়ের ময়লা পানি মাড়িয়ে চলাচল করতে হয় তাদের। শুষ্ক মৌসুমেও এই জলাবদ্ধতা। করো’নার সময়েও দুর্ভোগে আছে ফতুল্লা ইউনিয়নের ৬টি গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ।

প্রায় একমাস ধরে কৃত্রিম জলাবদ্ধতায় ক’ষ্টভোগ করতে হচ্ছে তাদের। এই ইউনিয়নের লালপুর, পৌষারপুকুপাড়, আলমবাগ, পা’কিস্তানখাদ টাগারপাড়, গাবতলী গ্রামের লক্ষাধিক মানুষ একমাস ধরে পানিতে তলিয়ে আছে।

জলাবদ্ধতার ফলে বাড়িঘর, রাস্তাঘাট তলিয়ে গেছে। পয়ঃনিস্কাশনের পানি, ক্যামিকেলের পানি মিলে মিশে একাকার হয়ে জনজীবনকে দুর্বিসহ করে তুলেছে। জলাবদ্ধতার কারণে ঘরে ঘরে মানুষকে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

বিশেষ করে শি’শু, বৃদ্ধ’রা এই ক’ষ্টের শিকার হচ্ছে বেশী। নোংরা, পচা, ময়লা, ক্যামিকেল ও দুর্গন্ধযু’ক্ত পানি মাড়ানোর কারণে অনেকেরই দেখা দিয়েছে চর্ম’রোগ ও চুলকানি। পানি নিষ্কাশিত না হওয়ায় ফতুল্লা-লালপুর-পৌষারপুকুরপাড়-পা’কিস্তানখাদ ৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের সড়কটি তলিয়ে গিয়ে সেখানে এখন হরহামেশাই ঘটছে নানা দুর্ঘ’টনা।

রাস্তার জায়গায় জায়গায় পানির নীচে লুকানো খানাখন্দ তৈরি হওয়ায় দুর্ঘ’টনায় পতিত হচ্ছে পথচারী, রিকশাযাত্রী ও চালকরা। কোনো কোনো এলাকায় পানি উপচে রাস্তা ও বাসা বাড়িতে ঢুকে গেছে। ড্রেনের নোংরা পানি ও মলমূত্রের সাথে যোগ হয়েছে শিল্প-কারখানার কেমিক্যালযু’ক্ত বিষাক্ত পানি।

লালপুর এলাকার বাসিন্দা নীল রতন দাস (৬২) একটি জাতীয় দৈনিককে জানান, ‘এই এলাকায় জলাবদ্ধতার জন্য দায়ী আজাদ ডাইংসহ আরো কয়েকটি ডাইং। করো’নার এই মহামা’রীতে এমনিতেই আম’রা দুর্বিসহ জীবন যাপন করছি। তার উপর এই জলাবদ্ধতা আমাদের জীবনকে আরো বিষিয়ে তুলেছে।’ পৌষারপুকুরপাড় এলাকার গৃহিনী রেহেনা আক্তার (৩২) বলেন, ‘পানির সাথে মলমূত্র ও শিল্প-কারখানার কেমিক্যালযু’ক্ত বিষাক্ত পানি মিশে যাওয়ায় চরম দুর্ভোগে পড়েছে শত শত মানুষ। ময়লা পানি বিশেষ করে যাদের একতলা ও নিচতলায় বাড়ি সেখানে ঢুকে চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে।

রান্নাসহ নানা কাজ কর্মে সমস্যা হচ্ছে।’ স্থানীয় সংসদ সদস্য শামীম ওসমান একই জাতীয় দৈনিককে বলেন, ‘বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। ফতুল্লা ইউনিয়নের ওই এলাকাগু’লি যেন ডিএনডি জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্পের আওতায় আনা আনা হয় সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে অচিরেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 6
    Shares