প্রচ্ছদ বাংলাদেশ রাজনীতি

করোনার বিপক্ষে রুখে দাঁড়িয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর আস্থাভাজনরা

29
পড়া যাবে: 3 মিনিটে

বিশেষ প্রতিবেদন:

গত ৪ মাস ধরে করোনার সঙ্গে ল’ড়ছে বাংলাদেশ। আর এই যু’দ্ধে সমালোচকরা যাই বলুক না কেন বাংলাদেশ বেশ ভালোভাবে টিকে আছে। বিশ্বে করোনার সঙ্গে বসবাসের যে কৌশল নিয়ে বাংলাদেশ এগোচ্ছে সেই কৌশলের পথেই আজ বিশ্ব হাঁটছে। অর্থনৈতিক জীবনযাত্রাকে সচল রেখে করোনা মোকাবেলা করার যে পদ্ধতি শেখ হাসিনা প্রথম দেখিয়েছিলেন সেই পথেই হাঁটছে বিশ্ব।

আমরা যতই বলি না কেন করোনা ঠেকাতে হবে, লকডাউন দিতে হবে কিন্তু দীর্ঘদিন লকডাউন থাকার পরেও করোনা সং’ক্রমণ ছড়িয়েছে বহু দেশে। তাছাড়া লকডাউন দিয়ে দীর্ঘদিন একটি দেশের অর্থনীতি টিকিয়ে রাখা যায়না। শেখ হাসিনার এই উপলব্ধির সঙ্গে একমত বিশ্বের সব নেতৃবৃন্দ। আর তাই করোনা মোকাবেলার প্রধান কৌশল হচ্ছে ভ্যাক্সিন আসা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে করোনার সঙ্গে টিকে থাকা। বাংলাদেশ সেই পথেই হাঁটছে।

বাংলাদেশের এই পথ ভুল না সঠিক তা বিচার করবে ইতিহাস। তবে প্রথম দফায় সাধারণ ছুটির পরে মানুষের অর্থনৈতিক জীবনযাত্রায় যে ভ’য়াবহতা নেমে এসেছিল সেখান থেকে আস্তে আস্তে বাংলাদেশ মুক্ত হচ্ছে এবং অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ক্রমশ সচল হচ্ছে। শেখ হাসিনা করোনা মোকাবেলায় সামনে থেকে ল’ড়ছেন এবং একের পর এক নির্দেশনা দিয়ে পরিস্থিতিকে স্বাভাবিক করার চেষ্টা করছেন। আর এই কাজের ক্ষেত্রে অনেকেই প্রধানমন্ত্রীকে অ’সহযোগিতা করছেন।

তবে প্রধানমন্ত্রীর একান্ত আস্থাভাজনরা শেখ হাসিনাকে করোনা মোকাবেলায় সহযোগিতা করছেন এবং তার নেতৃত্বে কাজ করে যাচ্ছেন। এছাড়া এই টিমের অন্য ১০ জন সদস্য হলেন-

১. ওবায়দুল কাদের

ওবায়দুল কাদের করোনা সং’কটের সময় বাড়িতে থেকেই এই যু’দ্ধে অংশগ্রহণ করছেন। একদিকে তিনি যেমন জনগণের কণ্ঠস্বর হয়ে কথা বলছেন, অন্যদিকে করোনা সং’ক্রমণ নিয়ে বিরো’ধী দল যে গুজব সন্ত্রা’স করছে তারও জবাব দিচ্ছেন। ওবায়দুল কাদের করোনা সং’কটে যেন জনগণের কণ্ঠস্বর হয়ে উঠেছেন, বিভিন্ন বিষয়ে জনগণের যে আকাঙ্ক্ষা সেই আকাঙ্ক্ষাকে ধারণ করছেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক যখন বাংলাদেশে ২-৩ বছর করোনা থাকতে পারে বলে মন্তব্য করলেন, তখন ওবায়দুল কাদের সেটাকে কাণ্ডজ্ঞানহীন বলে আখ্যায়িত করলেন। সবসময় জনগণকে আশ্বস্ত করা, জনগণের পাশে থাকা এবং শেখ হাসিনার নীতিকৌশল বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে ওবায়দুল কাদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন।

আরও পড়ুন:  ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক নিয়ে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী

২. ড. আব্দুর রাজ্জাক

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এই করোনাযু’দ্ধে শেখ হাসিনার অন্যতম বিশ্বস্ত যো’দ্ধা হিসেবে কাজ করছেন। বিশেষ করে কৃষি উৎপাদনকে সচল রাখা এই যু’দ্ধের অন্যতম কৌশল। শেখ হাসিনার নির্দেশে বোরো ধান উৎপাদনে সফলতা দেখিয়েছেন ড. আব্দুর রাজ্জাক এবং দেশের কৃষি খাতকে সচল রেখেছেন।

৩. আ হ ম মোস্তফা কামাল

শেখ হাসিনার করোনাযু’দ্ধের অন্যতম কৌশল হলো অর্থনীতিকে চালু রাখা এবং গরীব মানুষের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করা। আর এই কাজের ক্ষেত্রে শেখ হাসিনাকে সাহায্য করছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল। তিনিও করোনাযু’দ্ধে শেখ হাসিনার অন্যতম সহযো’দ্ধা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

৪. এম এ মান্নান

শেখ হাসিনা করোনাযু’দ্ধে একটি স্বল্প, মধ্য এবং দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা করেছেন। আর এই পরিকল্পনাকে পূর্ণ রূপ দানের ক্ষেত্রে কাজ করছে পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানের নেতৃত্বে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়। তিনিও এই করোনাযু’দ্ধের অন্যতম যো’দ্ধা।

৫. ড. হাছান মাহমুদ

করোনাযু’দ্ধে তথ্য সন্ত্রা’স একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। পাশাপাশি গণমাধ্যমকে একসঙ্গে নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে তথ্য মন্ত্রী হিসেবে ড. হাছান মাহমুদ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন।

৬. ডা. দীপু মনি

করোনাযু’দ্ধে শিক্ষা একটি গভীর সং’কটে পড়েছে। এই সময় শিক্ষাকে চালু রাখা, বিশেষ করে অনলাইন ক্লাস চালু করা, এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল দেওয়া এবং শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখার ক্ষেত্রে নানান বিকল্প চিন্তাভাবনা করে ডা. দীপু মনিও করোনাযু’দ্ধে শেখ হাসিনার বিশ্বস্ত যো’দ্ধা হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন।

আরও পড়ুন:  ভিপি নুর-রাশেদ ‘অবাঞ্চিত’, ভাঙলো ছাত্র অধিকার পরিষদ

৭. খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম করোনা সং’কটের সময় শেখ হাসিনার অন্যতম নির্দেশনা বাস্তবায়নকারী হিসেবে কাজ করছেন। প্রশাসনকে সচল রাখার ক্ষেত্রে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন।

৮. ড. আহমদ কায়কাউস

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় করোনাযু’দ্ধে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন করছেন এবং করোনাযু’দ্ধে মূল কেন্দ্রতে এই কার্যালয় পরিণত হয়েছে। এক্ষেত্রে শেখ হাসিনাকে পাশে থেকে সহযোগিতা করছেন তার মূখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।

৯. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া

করোনাযু’দ্ধে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আরেকজন যো’দ্ধা হলেন তোফাজ্জল হোসেন মিয়া। তিনি প্রধানমন্ত্রীর সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন এবং সারাদেশে তদারকি ব্যবস্থাপনা এবং মানুষের পাশে দাড়ানোর যে কার্যক্রম পরিচালনা করছে তাতে ড. আহমেদ আল কায়কাউসের সঙ্গে মিলে কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এই সচিব।

১০. মো. আবদুল মান্নান

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অযোগ্যতার প্রেক্ষিতে এই মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিবকে বদলি করে দেওয়া হয় এবং সেখানে নিয়ে আসা হয় মো. আবদুল মান্নানকে। তুখোড় মেধাবী এই সরকারী কর্মকর্তা এখন করোনাযু’দ্ধে শেখ হাসিনার এক বিশ্বস্ত সৈনিক হিসেবে কাজ করছেন।

এভাবেই শেখ হাসিনা করোনাযু’দ্ধে একটি টিম তৈরি করেছেন। তবে শেখ হাসিনার করোনাযু’দ্ধে সবচেয়ে বড় সৈনিক হলো এদেশের আপামর জনসাধারণ। যারা শেখ হাসিনার প্রতি বিশ্বাস রেখেছেন, আস্থা রেখেছেন এবং তারা মনে করছেন শেখ হাসিনার কারণেই বাংলাদেশ করোনাযু’দ্ধে জয়ী হবে।

বাংলাইনসাইডার

বাংলা ম্যাগাজিন ডেস্ক !

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 16
    Shares