প্রচ্ছদ অপরাধ বিকাশে প্রতারণার ফাঁদ, কল ধরে উধাও ১০ হাজার টাকা

বিকাশে প্রতারণার ফাঁদ, কল ধরে উধাও ১০ হাজার টাকা

86
বিকাশে প্রতারণার ফাঁদ
ছবি : সংগৃহীত
পড়া যাবে: < 1 minute

বিকাশের ঢাকা অফিস মহাখালী থেকে বলছি। এরপর কিছু তথ্য জানতে চান। তখন আমি ফোনের লাইনটা কেটে দেই। পরদিন বেলা ১২টা ৩৬ মিনিটে আমার ওই নম্বর থেকে ১০ হাজার টাকা সেন্ডমানি করে নেয়া হয়। বিষয়টি বিকাশের দায়িত্বে থাকা স্থানীয় এসআরকে জানালে তিনি বলেন, আমাদের কিছু করার নেই।

এ ভাবেই কথাগুলো বলছিলেন সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার চন্দনপুর এলাকার বিকাশের ব্যবসায়ী আসলাম সিকদার। তিনি ওই এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে।

তিনি আরও বলেন, গত ১২ অক্টোবর রাত সাড়ে ১১টার দিকে আমার পারসোনাল বিকাশের (০১৯১৪১৩৪১৪১) নম্বরে ০১৯০৬১১০৭২৪ নম্বর থেকে কল আসে। আমি তাদের আমার বিকাশের কোনো তথ্য দেয়নি।

আরও পড়ুন:  সুপরিকল্পিত হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন রিফাত শরীফ , কথোপকথন ফাঁস

কলটি রিসিভ করেছিলাম মাত্র। আমি গরিব মানুষ, কল ধরেই আমার ১০ হাজার টাকা চলে গেল।

আসলাম সিকদার বলেন, ঘটনাটি নিয়ে পরদিন কলারোয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি। ডায়েরি নং-৫৪০। যে নম্বরে টাকা সেন্ডমানি করে নেয়া হয়েছে বা যেখান থেকে ক্যাশআউট করা হয়েছে বিকাশ কর্তৃপক্ষ চাইলে খুব সহজেই বের করতে পারবে।

তবে আমাদের দিকে আসা এসআর ফিরোজ আহম্মেদকে জানালে সে বলে, আমাদের কিছু করার নেই।

এ বিষয়ে বিকাশের এসআর ফিরোজ আহম্মেদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ বিষয়ে পরে কথা বলবেন বলে মোবাইল সংযোগ কেটে দেন।

আরও পড়ুন:  রীতিমতো ক্যাম্প বানিয়ে গাজওয়াতুল হিন্দ যু’দ্ধের জন্য ট্রেনিং নিচ্ছিল ৩৩ জ’ঙ্গি

কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মারুফ আহম্মেদ জাগো নিউজকে বলেন, এমন ঘটনায় আমাদের কিছু করার থাকে না। তবে বিকাশের পরবর্তী ব্যবস্থার জন্য থানায় সাধারণ ডায়েরি প্রয়োজন।

বিকাশ কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানালে তাদের আইটি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্তরা বিষয়টির সমাধান করতে পারবেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট: