প্রচ্ছদ অপরাধ

যেভাবে ভুয়া টেস্টে ৩ কোটি টাকা হাতিয়েছেন শাহেদ

39
যেভাবে ভুয়া টেস্টে ৩ কোটি টাকা হাতিয়েছেন শাহেদ
পড়া যাবে: 3 মিনিটে

ক’রোনাভা’ইরাস পরীক্ষার ভু’য়া রিপোর্ট দেয়াসহ নানা অ’ভিযোগে সিলগালা করে দেয়া রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো: শাহেদ সম্পর্কে চাঞ্চল্যকর তথ্য দিয়েছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন বা র‍্যাব। ফেসবুকে অনেকে মো: শাহেদের বহু ছবি শেয়ার করেছে যেখানে তাকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা ও শীর্ষ সরকারি কর্মক’র্তাদের সাথে দেখা গেছে।

 

এমনকি বিএনপির কিছু সিনিয়র নেতার সাথে তার ছবি ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে। এক সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব-এর মুখপাত্র সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, “বাংলাদেশের হর্তা-কর্তা ব্যক্তিদের সাথে সে ছবি তুলেছে। এটা আসলে তার একটা মানসিক অ’সুস্থতা। এই ছবি তোলাকে কেন্দ্র করেই সে প্রতারণা করতো।”

 

মো: শাহেদের রাজনৈতিক পরিচয় সম্পর্কে সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্ন করা হলে র‍্যাব মুখপাত্র বলেন, “প্রতারকদের কোন রাজনৈতিক পরিচয় নেই। তারা যখন যার নাম পারে তখন সেটা বেচে নিজের জীবনকে অগ্রগামী করার চে’ষ্টা করে। র‍্যাব কর্মক’র্তা মি: কাশেম বলেন, প্রতারণার মাধ্যমে রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো: শাহেদ বহু মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। “প্রতারণাই ছিল তার প্রধান ব্যবসা,” বলেন র‍্যাব কর্মক’র্তা।

 

এমএলএম কোম্পানির মাধ্যমে মানুষের সাথে আর্থিক প্রতারণার জন্য এর আগে এই ব্যক্তি কারাগারেও গিয়েছিল বলে তথ্য দিয়েছে র‍্যাব। র‍্যাব জানায়, রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যানকে গ্রে’ফতার করার জন্য গতরাতে বিভিন্ন জায়গায় অ’ভিযান চালানো হয়েছে।তাকে দ্রুত আ’টক করা সম্ভব হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন র‍্যাব কর্মক’র্তা মি: কাশেম। বাংলাদেশে ক’রোনাভা’ইরাসের সং’ক্রমণ শুরুর পর থেকে ভু’য়া পরীক্ষা এবং নানা অ’পকর্মের মাধ্যমে শাহেদ কয়েক কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে অ’ভিযোগ রয়েছে।

 

“গত তিনমাসে সে আমাদের হিসেব মতে প্রায় আড়াই থেকে তিন কোটি টাকা সে অ’বৈধভাবে মানুষের কাছ থেকে অ’পকর্মের মাধ্যমে নিয়েছে,” বলেন র‍্যাব কর্মক’র্তা মি: কাশেম।র‍্যাব-এর তথ্য অনুযায়ী ক’রোনাভা’ইরাস টেস্ট করারা জন্য রিজেন্ট হাসপাতাল প্রায় ১০ হাজার মানুষের নমুনা সংগ্রহ করেছে। কিন্তু সেগুলো পরীক্ষা না করেই রোগীদের ভু’য়া ফলাফল দেয়া হয়েছে। র‍্যাব জানিয়েছে, ৪৫০০ ভু’য়া টেস্টের কাগজপত্র তাদের হাতে এসেছে।

আরও পড়ুন:  প্রতারণার প্রমাণ মিলেছে ডা. সাবরিনার বিরুদ্ধে তদন্ত

 

র‍্যাব বলছে, টেস্টের ভু’য়া ফলাফল তৈরি করা হয়েছে রিজেন্ট হাসপাতালের কম্পিউটার সিস্টেমে। প্রতিষ্ঠানটির কম্পিউটার অপারেটরদের দ্বারা ভু’য়া ফলাফল তৈরি করতে বা’ধ্য করেছে হাসপাতালটির চেয়ারম্যান।যেসব কম্পিউটার অপারেটরদের বা’ধ্য করিয়ে এসব ভু’য়া ফলাফল তৈরি করা হয়েছে তাদের সবাইকে তিন মাস আগেই চাকুরিচ্যুত করেছেন হাসপাতালের চেয়ারম্যান।

 

“যদি কোন কারণে তারা আ’ইনশৃঙ্খলা র’ক্ষাকারী বা’হিনীর কাছে ধ’রা পড়ে যায়, তাহলে যেন বলতে পারে, এটা আমার কর্ম না। এটা তো আমার কম্পিউটার অপারেটর আমার নাম ভা’ঙিয়ে করেছে,” বলেন র‍্যাব-এর মুখপাত্র।রিজেন্ট হাসপাতাল ও গ্রুপের মালিক ও এমডি সহ ১৭ জনের বি’রুদ্ধে মা’মলা হয়েছে এবং এর মধ্যে আট জনকে আ’টক করা হয়েছে। মো: শাহেদকে আ’টক করার জন্য অ’ভিযান চলছে বলে জানায় র‍্যাব।

 

লে. কর্নেল সারওয়ার-বিন-কাশেম বলেছেন, র‌্যাব ছাড়াও অন্যান্য বা’হিনী সতর্ক থাকায় তিনি (মো. শাহেদ) দেশ ছেড়ে পা’লাতে পারবেন না। শিগগিরই তাকে আ’ইনের আওতায় আনা সম্ভব হবে।তিনি আরও বলেন, দুই রাত ধরেই তাকে গ্রে’ফতারের চে’ষ্টা চলছে। বিভিন্ন জায়গায় আমরা খোঁ’জ করছি। বলে রাখতে চাই, সে অবশ্যই ধরাছোঁয়ার বাইরে নয়। কারণ কেউ ধরাছোঁয়ার বাইরে নয়। যারাই আ’ইনের ঊর্ধ্বে যাওয়ার চে’ষ্টা করবে অবশ্যই তাকে আমরা আ’ইনের আওতায় আনতে সক্ষম। তার বিষয়ে অন্যান্য সংস্থাও স’তর্ক।

শাহেদ কোনো কমিটির সদস্য নয়: যা জানালো আ.লীগ

বহুল আলোচিত রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহেদ নিজেকে আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক উপকমিটির সদস্য বলে পরিচয় দিলেও তিনি দলের কোনো কমিটির সদস্য নয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মী আহমেদ।

বুধবার (৮ জুলাই) গণমাধ্যমকে তিনি এ তথ্য জানিয়ে বলেন, তিনি বলেন, রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান শাহেদকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক উপকমিটির সদস্য বলে প্রচার করা হচ্ছে। এই তথ্য সম্পূর্ণ মিথ্যা ও দলের বিরুদ্ধে অপপ্রচার। তিনি কমিটির সদস্য নন।

আরও পড়ুন:  এমপি পাপুলের স্ত্রী ও শ্যালিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুদক

ড. শাম্মী আহমেদ সম্পাদক, আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক উপকমিটি এখনো তৈরি হয়নি।আগে কমিটির খসড়া তালিকা তৈরি করব তারপর দলীয় সাধারণ সম্পাদকের কাছে জমা দেওয়া হবে; এরপর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাতে অনুমোদন দেবেন। কিন্তু যেখানে কমিটি জমাই দেওয়া হয়নি, সেখানে এমন যারা উপকমিটির সদস্য হিসেবে পরিচয় দেন, তারা মিথ্যা পরিচয়ই দেন।

আওয়ামী লীগ নেতা, সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রী এমনকি তার সঙ্গে রিজেন্ট হাসপাতালের মালিকের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ওই ব্যক্তি দলীয় বিভিন্ন কর্মসূচিতে বা সামাজিক অনুষ্ঠানে হাজির হতেন। সেই সুযেগে হয়তো কোনো ছবি তুলতে পারেন। এখন সবার হতেই মোবাইল ফোন আছে, যে কেউ কোনো অনুষ্ঠানে চাইলেই ছবি তুলতে পারেন। ছবি তুললেই তো কেউ সংগঠনের হয়ে যান না।

আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক বলেন, কমিটিতে জায়গা পেতে শাহেদ নানারকম চেষ্টা তদবির করেছেন।কিন্তু শুরু থেকেই তাকে টাউট মনে হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন নেতাকে দিয়ে তদবির করার কারণে তার প্রতি সন্দেহ আরো বাড়ে। তাই কমিটি করলে শাহেদকে কমিটিতে রাখব না বলেই আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। যদিও চলতি বছরের শুরুতে কমিটি জমা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নানা ব্যস্ততার কারণে আমি জমা দিতে পারিনি। এরপর তো করোনা শুরু হয়ে গেল।

প্রসঙ্গত, করোনা চিকিৎসার নামে অনিয়ম ও প্রতারণার অভিযোগ ওঠেছে রিজেন্ট হাসপাতালের বিরুদ্ধে। প্রতিষ্ঠানটি সাড়ে প্রায় চার হাজার করোনা টেস্টের ভু’য়া রিপোর্ট দিয়েছে।করোনা চিকিৎসার নামে প্রতারণাসহ নানা অভিযোগে সাহেদসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানায় মামলা করা হয়েছে। মামলার প্রধান আসামী মোহাম্মদ শাহেদ বর্তমানে পলাতক আছেন। তাকে ধরতে অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 17
    Shares