প্রচ্ছদ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঐক্যফ্রন্টে ভাঙন: মোস্তফা মহসীন মন্টু ও সুব্রত চৌধুরী আ’লীগে আসছেন?

ঐক্যফ্রন্টে ভাঙন: মোস্তফা মহসীন মন্টু ও সুব্রত চৌধুরী আ’লীগে আসছেন?

377
মোস্তফা মহসীন মন্টু ও সুব্রত চৌধুরী আ’লীগে আসছেন?
ছবি : সংগৃহীত
পড়া যাবে: < 1 minute

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দুজন গুরুত্বপূর্ণ নেতার সঙ্গে আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের একজন নেতাদের যোগাযোগের খবর পাওয়া গেছে। ঐক্যের দুই নেতাকেই আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

জানা গেছে, যে প্রক্রিয়ায় ঐক্যফ্রন্টের বৃহত্তম শরিক বিএনপি পুরো জোটই দখল করে ফেলেছে তা নিয়ে দুজনের মধ্যেই অসন্তোষ আছে। এরই মধ্যে, সম্প্রতি বিএনপির সঙ্গে আসন ভাগাভাগি নিয়ে দুই ঐক্যফ্রন্ট নেতাই অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছেন। ঐক্যফ্রন্টের এই দুই নেতা হলেন, মোস্তফা মহসীন মন্টু ও সুব্রত চৌধুরী।

মন্টু ও সুব্রত চৌধুরী দুজনই ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের বিশ্বস্ত দুই সহচর বলেই পরিচিত। মোস্তফা মহসীন মন্টু হলেন ড. কামালের দল গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক। আর সুব্রত চৌধুরী হলেন, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি। মূলত তাঁদের দুজনের কারণেই নিভু নিভু অবস্থায়ও টিকে ছিল গণফোরাম।

আরও পড়ুন:  ক্যা*সিনোর সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে এবার আটক আওয়ামী লীগের এনামুল, রূপন

জানা গেছে, মোস্তফা মহসীন মন্টু ঢাকার কেরানীগঞ্জের দুটি আসনে মনোনয়ন চেয়েছিলেন। কিন্তু দুটি আসন বিএনপি দলীয় নেতাদের মনোনয়ন দিতে চায়। মন্টুর আগ্রহের একটি আসনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় মনোনয়ন পেতে পারেন। আরেকটি আসনে মনোনয়ন পেতে পারেন বিএনপি ভাইস চেয়ারম্যান আমান উল্লাহ আমান। বিএনপি কোনো অবস্থাতেই মন্টুকে দুটি আসন ছেড়ে দিতে রাজি নয় বলে জানা গেছে।

গতকাল মঙ্গলবার গভীর রাত পর্যন্ত এই নিয়ে মন্টুর সঙ্গে বিএনপির নেতাদের কথা হলেও কোনো সমঝোতা হয়নি বলেই সূত্র জানিয়েছে।

আর সুব্রত চৌধুরী যে আসনে মনোনয়ন চান সেখানে বিএনপি মনোনয়ন দিতে ইচ্ছুক তাদের অপর জোট ২০ দলের শরিক এলডিপির কর্নেল (অব.) অলি আহমেদকে। জানা গেছে, অলি আহমেদ কোনো ভাবেই তাঁর আসন ছেড়ে দিতে রাজি নন। এছাড়া বিএনপি দাবি করেছে, ওই আসনে সুব্রত চৌধুরীর কোনো জনপ্রিয়তাও নেই।

আরও পড়ুন:  মন্ত্রী হলেই কি এমন বিড়ম্বনা সইতে হবে?

এই পরিপ্রেক্ষিতে আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী একজন নেতা মোস্তফা মহসীন মন্টু ও সুব্রত চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন বলে জানা গেছে। সূত্র জানিয়েছে, দুজনই আজকের দিনটি সময় চেয়েছেন।

আজকের মধ্যে আসন নিয়ে যদি কোনো সমঝোতা না হয়, তাহলে দুজনই আওয়ামী লীগে যোগ দিতে পারেন বলে জানা গেছে। আর এমনটি ঘটলে, তা হবে ঐক্যফ্রন্টের জন্য এযাবৎকালের মধ্যে সবচেয়ে বড় বিপর্যয়।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট: