প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জাতীয়

রাজধানীর জলাবদ্ধতার জন্য যাদের দায়ী করলেন ঢাকার দুই মেয়র

39
রাজধানীর জলাবদ্ধতার জন্য যাদের দায়ী করলেন ঢাকার দুই মেয়র
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

July 21, 2020July 21, 2020

বাংলা ম্যাগাজিন ডেস্ক : বৃষ্টিতে তৈরি হওয়া রাজধানীর জলাবদ্ধতার জন্য ওয়াসা দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। অন্যদিকে, দুপুরে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম মেট্রোরেল ও এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্প সংলগ্ন এলাকায় জলাবদ্ধতার জন্য তারা পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ করেন।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমকে ঢাকার জলাবদ্ধতার জন্য করা প্রশ্নের উত্তরে এমনটাই বলেছেন। দুই দিনের টানা বৃষ্টিতে রাজধানী ঢাকার বেশ কয়েকটি এলাকা যেন পরিণত হয়েছে ছোট ছোট নদীতে। কোথাও হাঁটু পানি আবার কোথাও কোমর পানিতে সয়লাব।

বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্র জানায়, গতকাল থেকে আজ মঙ্গলবার ভোর ৬টার আগ পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে ৮৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মো. আফতাব উদ্দিন বলেন, বর্ষায় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে সারাদেশে বৃষ্টি হচ্ছে। আরও দুই-তিন দিন এমন পরিস্থিতি অব্যাহত থাকতে পারে।

করোনা মহামারির মধ্যেই ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে নগরবাসীর দুর্ভোগ বাড়ছে। জমে থাকা বৃষ্টির পানির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দীর্ঘ হচ্ছে যানজটের সারি। পানিতে না ভিজে সড়ক পারাপারের কোনও উপায় নেই। যানজটের কারণে ২০ মিনিটের রাস্তা অতিক্রম করতে সময় লাগছে দুই থেকে আড়াই ঘণ্টার বেশি।

আরও পড়ুন:  লকডাউনে ঢাকার মিরপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানায় পশুপাখির জন্ম বেড়ে গেছে

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের পল্লবী, মিরপুর, মোহাম্মদপুর, শ্যামলী, তালতলা, কাজীপাড়া, শেরেবাংলা নগর, আগারগাঁও, দারুস সালাম, ক্যান্টনমেন্ট, উত্তরা ও বিমানবন্দর এলাকা এবং দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ধানমন্ডি-২৭, হাজারীবাগ, শংকর, জিগাতলা, রায়েরবাজার, পুরান ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোড ও শান্তিনগরসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় এমন চিত্র দেখা গেছে। এসব এলাকায় যারা ঘর ছেড়ে কাজে বাইরে বের হয়েছেন, তাদেরকে সীমাহীন বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে। মিরপুর ১০ নম্বর থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত সড়কটি যেন একটি ছোটখাটো নদী। পুরোসড়কে হাঁটু থেকে কোমর পরিমাণ পানি জমে গেছে। পানিতে ডুবে থাকা সড়কের মধ্য দিয়ে যখন যানবাহন চলছে, তখন সড়কজুড়ে সৃষ্টি হচ্ছে ঢেউ।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম এ বিষয়ে বলেন, মেট্রোরেল ও এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্প সংলগ্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা আছে। কর্তৃপক্ষকে এ বিষয়ে অভিযোগ করা হলেও, তারা পানি নিষ্কাশনের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নেয়নি। এ সমস্যার সমাধানে কয়েক দিনের মধ্যে আমরা সংশ্লিষ্ট সবার সঙ্গে একটি বৈঠক করব।

আরও পড়ুন:  ডা. সাবরিনার ২ এনআইডিই ব্লক

অন্যদিকে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস দ্য বলেন, রাজধানীতে জলাবদ্ধতার জন্য দায়ী ওয়াসা। পানি নিষ্কাশনই তাদের মূল কাজ। তবে, স্থানীয় সরকার (সিটি কর্পোরেশন) আইন-২০০৯ বিষয়টি নিয়ে আমাদের কাজ করার অনুমোদন দিয়েছে।

তিনি বলেন, যদি ওয়াসা এই আইন অনুযায়ী আমাদের এ বিষয়ে কাজ করতে বলে, তবে আমরা অবশ্যই যথাযথ ও কার্যকর পদ্ধতিতে জলাবদ্ধতাকে মোকাবিলা করব। এ ছাড়া, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছে পানি নিষ্কাশনের জন্য পাম্পিং মেশিন আছে। কিন্তু, তারা সেগুলো ব্যবহার করছে না।

তাপস বলেন, আমি সংশ্লিষ্ট সব কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি সিটি করপোরেশনের কাছে হস্তান্তর করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

., . .।. : বাংলা ম্যাগাজিন ডেস্ক

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 22
    Shares