প্রচ্ছদ প্রবাস

আমিরাতে রাষ্ট্রদূতের উদ্যোগে বাংলাদেশ কমিউনিটিতে নতুন মেরুকরণ

29
আমিরাতে রাষ্ট্রদূতের উদ্যোগে বাংলাদেশ কমিউনিটিতে নতুন মেরুকরণ
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

 

দুবাই উত্তর আমিরাতে প্রায় অর্ধযুগ পর বাংলাদেশ কমিউনিটিতে হঠাৎ নতুন মেরুকরণ দেখা দিয়েছে। রাজনৈতিক মতাদর্শের কারণে দীর্ঘদিন দ্বিধাবিভক্ত থাকার পর শুক্রবার রাতে দুবাই উত্তর আমিরাতে বাংলাদেশ কমিউনিটির মাঝে দেখা দিয়েছে যেন পুরোনো সোহার্দ্য। যা গত সাত বছর ধরে বাংলাদেশ কমিউনিটির মাঝে দেখা যায়নি।

গতকাল রাতে বাংলাদেশ সমিতির সারজার বঙ্গবন্ধু হল উদ্বোধন কালে দীর্ঘদিন রাজনৈতিক মতাদর্শ নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত থাকা দু’টি ধারার নেতৃবৃন্দের সহাবস্থান সবাইকে চমকে দিয়েছে।

সাত বছর তিন মাস পর দুবাই উত্তর আমিরাতের সাবেক কনসাল জেনারেল আবু জাফর রাষ্ট্রদূত হিসেবে ফিরে আসার পর এই অঞ্চলে বাংলাদেশ কমিউনিটির মাঝে আবারো প্রাণের সঞ্চার দেখা দিয়েছে। রাজনৈতিক মতাদর্শের ভিন্নতা এবং তৎকালীন রাষ্ট্রদূতের অবহেলা ও নানা প্রতিবন্ধকতার দাবি তুলে বাংলাদেশ কমিউনিটির একটা অংশ দীর্ঘদিন কমিউনিটির কার্যক্রম থেকে বিরত ছিল। কিন্তু সারজা বাংলাদেশ সমিতিতে হঠাৎ তাদের উপস্থিতি সকলের মাঝে কৌতুহল সৃষ্টি করে।

শুক্রবার রাতে বাংলাদেশ সমিতির শারজায় নবনির্মিত বঙ্গবন্ধু হল উদ্বোধন করতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আরব আমিরাতে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আবু জাফর। চলমান কোভিট ১৯ সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত সংখ্যক কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে বঙ্গবন্ধু হলটি উদ্বোধন করার কথা জানিয়েছিলেন সারজা বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি অাবুল বাশার ও সাধারণ সম্পাদক শাহ মাকসুদ । কিন্তু রাষ্ট্রদূত আবু জাফর কে দেখার জন্য দুবাই উত্তর আমিরাতের অসংখ্য কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ ছুটে আসেন বাংলাদেশ সমিতি শারজার বঙ্গবন্ধু হল রুমে। সেখানে দীর্ঘদিন অনুপস্থিত থাকা কমিটির নেতৃবৃন্দের একাংশ ছুটে আসেন রাষ্ট্রদূত আবু জাফরের সাথে সাক্ষাৎ করতে। অবশ্যই শারজা বাংলাদেশ সমিতির পক্ষ থেকে তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলে তারা সাংবাদিকদের জানান।

আরও পড়ুন:  পাঁচ বাংলাদেশিকে খুঁজছে মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশন

দুটি রাজনৈতিক মতাদর্শের নেতৃবৃন্দের  প্রতি ইঙ্গিত করে অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে বলেন মিশন কর্মকর্তারা হচ্ছেন রাষ্ট্রীয় সেবক । আমরা রাষ্ট্রের নিযুক্ত সেবক হিসেবে এখানে এসেছি, কোনো জনপ্রতিনিধি হিসেবে এখানে আসেনি।তাই আমাদের বাংলাদেশের সকল নাগরিকদের সমান চোখে দেখতে হবে। এখানে বিভাজন করে দেখার কোন সুযোগ নেই এবং বিভাজন তৈরি করে দেওয়ার কোন অধিকার নেই। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের রাষ্ট্রীয় আইন মেনে চলতে হবে।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল ইকবাল হোসেন খান, আবুধাবি বাংলাদেশ সমিতির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন, আল হারামাইন গ্রুপের কর্ণধার এবং এনআরবি ব্যাংকের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মাহতাবুর রহমান নাসির, বাংলাদেশ সমিতির সাবেক সভাপতি , শারজা বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা ও বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা ইঞ্জিনিয়ার আবু জাফর চৌধুরী, দুবাই বাংলাদেশ সমিতির আহ্বায়ক ও দুবাই বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা অধ্যাপক আবদুস সবুর, বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের সহ-সভাপতি আইয়ুব আলী বাবুল, সংযুক্ত আরব আমিরাত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের সাবেক সভাপতি ও কমিউনিটি নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, আওয়ামী লীগ বিএনপি সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের নেতৃবৃন্দ ও জনতা ব্যাংক ,বিমান এবং সমিতির কর্মকর্তারা এই সভায় উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন:  স্পেনে বিএনপি’র ৪২ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

বঙ্গবন্ধু হল উদ্বোধনের পর আয়োজিত আলোচনা সভায় ভিন্ন রাজনৈতিক মতাদর্শের দাবিদার বাংলাদেশ সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মাহমুদ ও সমিতির বর্তমান কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম রূপু বঙ্গবন্ধুর গুনগান ও করা উক্তি বিশ্লেষণ করে বক্তব্য রাখেন। এছাড়াও কমিউনিটির অনেক আওয়ামী লীগ নেতার সাথে বিএনপির নেতৃবৃন্দের সৌহার্দ্যপূর্ণ ভাবে ছবি তুলতে ও দেখা যায় ।

ভিন্ন ভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদের সোহার্দ্যপূর্ণ এ সহাবস্থান উপস্থিত কমিউনিটি ব্যক্তিদের কাছে আশ্চর্য মনে হলেও অনেকে এই সহাবস্থানকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এবং কমিউনিটিতে স্থিতিশীলতা ফিরে আসবে বলে দাবি করেন তারা।

তারা বলেন দলমত নির্বিশেষে এখন সকলে বাংলাদেশের জন্য একযোগে কাজ করতে পারবে। বাংলাদেশ মিশনও সকলকে নিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশীদের সকল সমস্যা সমাধানে সুন্দর ভাবে এগিয়ে যেতে পারবে ।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 16
    Shares