প্রচ্ছদ বাংলাদেশ উপজেলা

নিপীড়ন করে মাদ্রাসা ছাত্রীর বিবস্ত্র মরদেহ ঝুলিয়ে রাখলো দুবৃর্ত্তরা

86
পড়া যাবে: < 1 minute

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলায় হিরা আক্তার নামের ১২ বছরের এক মাদরাসাছাত্রীকে নিপীড়নের পর হত্যা করে বিবস্ত্র মরদেহ ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বুধবার বিকেল পর্যন্ত পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন যুবককে আটক করেছে। বুধবার দুপুরে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিহত মাদরাসাছাত্রীর মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার রাতে মোরলগঞ্জ উপজেলার বহরবুনিয়া ইউনিয়নের পশ্চিম বহরবুনিয়া গ্রাম থেকে ওই ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত হিরা ছাপড়াখালী গাজীরঘাট দাখিল মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী এবং পশ্চিম বহরবুনিয়া গ্রামের দিনমজুর গাউস শেখের মেয়ে।

আরও পড়ুন:  শূকরের মাংসকে হরিণের মাংস বলে বিক্রি হয়

নিহত মাদ্রাসা ছাত্রীর বাবা গাউস শেখ অভিযোগ করে বলেন, আমার স্ত্রী পারিবারিক কাজে বাগেরহাট শহরে যান। এ সময় আমি ও আমার মেয়ে হিরা আক্তার বাড়িতে ছিলাম। মঙ্গলবার বিকেলে আমি মেয়ে হিরাকে বাড়িতে একা রেখে কেনাকাটা করতে বাড়ির বাইরে যাই। সেখান থেকে ফিরে রাতে এসে দেখি আমার মেয়েকে বিবস্ত্র অবস্থায় ঘরের আড়ার সঙ্গে গামছা দিয়ে ঝুলানো। আমার মেয়েকে নিপীড়নর পর হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখে গেছে দুবৃর্ত্তরা।

বাগেরহাটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল ইসলাম বলেন, ‘ধারণা করা হচ্ছে, মেয়েটিকে পরিকল্পিতভাবে নিপীড়ন শেষে হত্যা করে বিবস্ত্র অবস্থায় ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। বিভিন্ন ধরণের আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে।’

আরও পড়ুন:  সদ্য ভূমিষ্ঠ কন্যা শিশুকে মাত্র পাঁচ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিলেন মা

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি