প্রচ্ছদ স্বাস্থ্য

হাতে-পায়ে ঝিঁ”ঝি ধরে? অ’ব’হে’লা করলেই বি’প’দ!!

29
হাতে-পায়ে ঝিঁ”ঝি ধরে? অ’ব’হে’লা করলেই বি’প’দ!!
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

হাত-পায়ে ঝিঁঝি অনেকেরই ধরে। সচরাচর পা কিংবা হাতের ওপর লম্বা সময় ধরে চাপ পড়ে থাকলে সাময়িক যে অসাড় অনুভূ’তি তৈরি হয়, সেটাই ঝিঁঝি ধ’রা।

এ ধরনের উপসর্গ কেতাবি ভাষায় ‘টেম্পরারি প্যারেসথেসিয়া’, ইংরেজিতে একে ‘পিনস অ্যান্ড নিডলস’ও বলা হয়।

শরীরের যে অংশে ঝিঁঝি ধরে, সেখানে সাময়িক অসাড়তার পাশাপাশি এমন এক ধরনের অনুভূ’তির তৈরি হয়, যেন অসংখ্য সুঁই দিয়ে এক স”ঙ্গে ওই অংশে খোঁচানো হচ্ছে। সাধারণত কিছুক্ষণের মধ্যেই অসাড়তা এবং খোঁচা লাগার মতো অস্বস্তিকর অনূভুতি চলে গিয়ে স্বাভাবিক অনুভূ’তি ফিরে আসে।

যেভাবে ঝিঁঝি ধরতে পারে সাধারণত মানুষের হাত-পায়ে ঝিঁঝি ধ’রার বি’ষয়টি সবচেয়ে বেশি পরিলক্ষিত হয়। দীর্ঘক্ষণ বসা বা শোয়ার পর যদি হাত বা পা এমন অবস্থানে বেশ কিছুক্ষণ থাকে, যেখানে সেটির ওপর লম্বা সময় ধরে চাপ পড়ে, তখন ঝিঁঝি ধ’রার শ’ঙ্কা থাকে।

সাধারণত আমা’দের যে ধরনের ঝিঁঝি ধ’রার অ’ভিজ্ঞতা হয়, তা সাময়িক এবং কিছুক্ষণের মধ্যেই ঠিক হয়ে যায়। তবে বিভিন্ন কারণে দীর্ঘসময় ঝিঁঝি ধ’রার মতো ঘটনাও ঘটে থাকে।

আরও পড়ুন:  লেবু খাওয়ার পর যে বড় ভু’ল’টি আমরা প্রায় সকলেই করি!

বিশেষ করে উচ্চ র’ক্তচাপের রোগীদের বা ডায়াবেটিস আ’ক্রা’ন্ত রোগীদের ক্ষেত্রে দীর্ঘসময় কোনো একটি অ”ঙ্গে অসাড়তা অনুভব করার ঘটনা ঘটতে পারে।

স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, মেরুদ’ণ্ডে আ’ঘা’তজনিত সমস্যা থেকে ‘সার্ভাইকাল স্পন্ডাইোসিস’ বা ‘লাম্বার স্পন্ডাইলোসিস’ এর ক্ষেত্রে হাতে পায়ে ঝিঁঝি ধ’রার আশ’ঙ্কা থাকে।

ঝিঁঝি কেন ধরে? ঝিঁঝি ধ’রার অনুভূ’তিটা আপাতদৃষ্টিতে কিছুটা র’হস্যজনক মনে হলেও এর পিছনে বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা অনেক সহ’জ। আমা’দের দে’হের সব জায়গায় অসংখ্য স্নায়ু রয়েছে। যেগু’লো মস্তিষ্ক ও দে’হের অন্যান্য অংশের মধ্যে তথ্য আ’দান-প্রদান করে থাকে।

স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বসা বা শোয়ার সময় সেসব স্নায়ুর কোনো একটিতে চাপ পড়লে দে’হের ওই অংশে র’ক্ত চলাচলকারী শিরার ওপরও চাপ পড়ে। ফলে শরীরের ওই অংশে র’ক্ত চলাচল ব্যা’হত হয়। এর ফলে ঝিঁঝি ধরতে পারে।

স্নায়ুতে চাপ পড়ার ফলে শরীরের ওই অংশ থেকে যেসব তথ্য মস্তিষ্কে পৌঁছানোর কথা ছিল, তা বাধাগ্রস্থ হয়। একইসাথে স্নায়ুগু’লোও হৃৎপিণ্ড থেকে অক্সিজেন সমৃ”দ্ধ র’ক্ত পাওয়া থেকে বিরত থাকে যেহেতু র’ক্ত সরবরাহকারী শিরার ওপর চাপ পড়ে। এরকম পরিস্থিতি থেকে যখন চাপ অ’পসারিত হয়, তখন একস”ঙ্গে প্রচুর পরিমাণ র’ক্ত অ”ঙ্গ প্রত্য”ঙ্গে প্রবাহিত হয় এবং একসাথে প্রচুর পরিমাণ তথ্য মস্তিষ্কে প্রবাহিত ‘হতে শুরু করে।

আরও পড়ুন:  সাধারণ পাঁচ বদ অভ্যাস মা’রা’ত্ম’ক কোমর ব্যথার কারণ।

কখন চিকিৎসকের পরাম’র্শ নেবেন দীর্ঘসময় ঝিঁঝি ধ’রার মতো উপসর্গ থাকলে চিকিৎসকের পরাম’র্শ নেয়া উচিত। ঝিঁঝি ধ’রার মতো উপসর্গ যদি দীর্ঘসময় ধরে ‘হতে থাকে তাহলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়া প্রয়োজন। এছাড়া কোনো অ”ঙ্গে নিয়মিত ঝিঁঝি

ধ’রার ঘটনা ঘটলে বা বারবার ঝিঁঝি ধ’রার ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটলেও চিকিৎসকের পরাম’র্শ নেয়া উচিত।

The post হাতে-পায়ে ঝিঁ”ঝি ধরে? অ’ব’হে’লা করলেই বি’প’দ!! appeared first on বাংলা ম্যাগাজিন.

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 5
    Shares