প্রচ্ছদ রাজনীতি বিএনপি

পরিকল্পিতভাবে নিজ দলীয় লোকদের দিয়েই ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলার ঘটনা ঘটিয়েছিল

21
পড়া যাবে: < 1 minute

১৯৯৪ সালে পাবনার ঈশ্বরদীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার (তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা) ট্রেনবহরে হামলার মামলাকে ‘সম্পূর্ণ বানোয়াট ও সাজানো’ বলে দাবি করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘পরিকল্পিতভাবে নিজ দলীয় লোকদের দিয়েই ট্রেনে গুলি ও বোমা হামলার ঘটনা ঘটিয়ে রাজনৈতিক ইস্যু সৃষ্টি করা হয়েছিল, যা সর্বজনবিদিত। রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রে আওয়ামী লীগের জুড়ি মেলা ভার।’

বুধবার পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে এই মামলায় ৯ জনের ফাঁসি, ২৫ জনের যাবজ্জীবন ও ১৩ জনের ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন।

আরও পড়ুন:  ঈদের আগেই বিএনপির কর্মসূচি ঘোষণা

আদালতের এ রায়ে বুধবার এক বিবৃতিতে ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করেন বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, ‘দীর্ঘ ২৪ বছর পর এই রায় ঘোষণায় প্রমাণিত হয় যে, সরকারের ক্রমপ্রসারমান ফাঁসির দড়ি এখন বিএনপির নিবেদিতপ্রাণ নেতাকর্মীদের দিকে ধাবিত হচ্ছে। বিএনপিসহ বিরোধীদল-মত নিশ্চিহ্নকরণে নাৎসিবাদী আয়োজনের নগ্ন বহিঃপ্রকাশ আজকে সরকারের নির্দেশে পাবনার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের রায়।’

বিএনপি মহাসচিব অভিযোগ করেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ নেতাকর্মীদের ওপর অব্যাহত জুলুমের পরেও বিএনপিকে নিস্তেজ তো করা যায়ইনি বরং জনসমর্থনের বিপুল বৃদ্ধিতে সরকার হিতাহিত জ্ঞানশূন্য হয়েছে। কাণ্ডজ্ঞান লোপ পেয়ে এখন বিএনপি নেতাকর্মীদের বিভিন্ন কায়দায় দুনিয়া থেকে নির্মূলে সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে।’

আরও পড়ুন:  প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলো বিএনপি, কি আছে এই চিঠিতে ?

বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দীর্ঘ ২৪ বছর পর এই রায় ঘোষণার ঘটনা শুধু হাস্যকরই নয়, এটি একটি সুদূরপ্রসারী মাস্টারপ্ল্যানেরই অংশ, বলে অভিযোগ করেন বিএনপির মহাসচিব।

এদিকে, মির্জা ফখরুল গতকাল বুধবার পাবনায় রায় ঘোষণার পরপরই বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিবসহ নেতাকর্মীদের ওপর আওয়ামী যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীদের হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি