প্রচ্ছদ জানা অজানা

ত্বকের যত্নে চন্দনের চারটি ভিন্ন ব্যবহার

16
ত্বকের যত্নে চন্দনের চারটি ভিন্ন ব্যবহার
পড়া যাবে: < 1 minute

লাইফস্টাইল ডেস্ক: বায়ুদূষণসহ রোদের আলোর ক্ষতিকর প্রভাব, বিভিন্ন ধরণের মেকআপ পণ্যের ব্যবহার ও ত্বকের মরা চামড়ার প্রভাব ত্বকের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলে দেয় সহজেই। এ কারণে ত্বকের পরিচর্যায় প্রয়োজন প্রাকৃতিক ও উপকারী উপাদান।

এমন উপাদানের মাঝে চন্দন কাঠের গুঁড়া অন্যতম। আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে ত্বকের যত্নে সবচেয়ে মূল্যবান উপাদান হিসেবে ধরা হয় চন্দন কাঠের গুঁড়াকে।

দেখে নিন ত্বকের যত্নে চন্দনের চারটি ভিন্ন ব্যবহার:

১. কয়েক ফোটা নারিকেল তেলের সঙ্গে চন্দন গুঁড়া মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করতে হবে। শুষ্ক ত্বকে এই পেস্টটি আর্দ্রতা প্রদানে সাহায্য করবে। মুখের ত্বক এই মিশ্রণটির প্রলেপ দিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে নিতে হবে।

আরও পড়ুন:  মধু খাওয়ার উপকারিতা

২. তৈলাক্ত ত্বকের জন্য লেবুর রস ও চন্দন গুঁড়া মিশিয়ে ব্যবহার করতে হবে। লেবুর রস ও চন্দন গুঁড়া মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে মুখের ত্বকে ম্যাসাজ করে ৮-১০ মিনিট রেখে দিতে হবে। এরপর কুসুম গরম পানিতে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। এতে করে ত্বকের অতিরিক্ত তেল নিঃসরণের সমস্যা অনেকখানি কমে আসবে।

৩. মুখের ত্বকে ব্রণের সমস্যা খুবই কমন। এক্ষেত্রে চন্দন গুঁড়ার ব্যবহার দারুণ কাজে আসবে। গোলাপজল ও চন্দন গুঁড়া একসাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করতে হবে। এই পেস্টটি ত্বকের ব্রণযুক্ত স্থানের উপর প্রয়োগ করে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। শুকিয়ে আসলে পানির সাহায্যে ধুয়ে নিতে হবে।

আরও পড়ুন:  চিনি থেকে পিঁপড়া দূরে রাখবেন যেভাবে

৪. ত্বকের গভীর থেকে পরিষ্কার করতে এবং ত্বকের মরা চামড়া ভালোভাবে তুলে ফেলতে চাইলে চন্দনের ফেসপ্যাক ব্যবহার করতে হবে। এর জন্য এক টেবিল চামচ চন্দন গুঁড়া, দুই টেবিল চামচ চটকে নেওয়া পাকা পেঁপে একসাথে মিশিয়ে পুরো মুখে ৫-৮ মিনিট ম্যাসাজ করতে হবে। ম্যাসাজ শেষে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে মুখের ত্বক ধুয়ে নিতে হবে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares