এবারও ১৫ আগস্ট জন্মদিন করছেন না খালেদা জিয়া

রোববার ১৫ আগস্ট বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার ৭৬তম জন্মদিন। যদিও এ জন্মতারিখ নিয়ে পক্ষে-বিপক্ষে নানা বিতর্ক রয়েছে। এজন্য বিতর্ক এড়াতে গত কয়েক বছরের জন্মদিনের মতো এবারের ৭৬তম জন্মদিনে কোনো কর্মসূচি নেই বিএনপির।

মূলত ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসের দিনে জন্মদিন পালনের বির্তক থেকে বেরিয়ে আসতে চায় বিএনপি। এজন্য দলটি চেয়ারপারসনের জন্মদিনের কর্মসূচি একদিন পিছিয়ে ১৬ আগস্ট পালনের সিদ্ধান্ত নেয়।

শনিবার (১৪ আগস্ট) বিএনপির কেন্দ্রীয় দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, খালেদা জিয়ার আরোগ্য, মুক্তি কামনা এবং করোনাসহ অন্যান্য রোগে মৃত্যুবরণকারী মানুষজনের আত্মার মাগফেরাত ও অসুস্থদের আশু সুস্থতা চেয়ে ১৬ আগস্ট (সোমবার) দেশব্যাপী দোয়া-মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। তবে বিজ্ঞপ্তিতে জন্মদিনের বিষয়টি উল্লেখ ছিল না।

বিএনপির নেতারা বলছেন, সর্বশেষ খালেদা জিয়ার ৭০তম জন্মদিনে সিদ্ধান্ত হয় ১৫ আগস্ট আর কেক কাটা হবে না। কেক কাটার পরিবর্তে মিলাদ মাহফিল ও জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত করা হবে।

সেই অনুযায়ী ২০১৬ সালের ১৫ আগস্ট ৭১তম জন্মদিনে কেক না কেটে সকালে জিয়াউর রহমানের কবর জিয়ারত ও মিলাদ মাহফিল করা হয়। ২০১৮ সাল পর্যন্ত সেই ধারা অব্যাহত ছিল। এরপর গত ২০১৯ সালের ৭৫তম জন্মদিনে ১৫ আগস্টের পরিবর্তে ১৬ আগস্ট জন্মদিন উপলক্ষে জিয়ার কবর জিয়ারত ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এবারও সেটা অব্যাহত রয়েছে।

 

Leave a Comment