নৌকায় ট্রলারের ধাক্কা, আনন্দভ্রমণে গিয়ে লাশ হলেন চিকিৎসক

ময়মনসিংহের ভালুকায় খিরু নদীতে ট্রলারের ধাক্কায় নৌকাডুবির ঘটনায় নিখোঁজ চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। নৌকা ডুবে এ নিয়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

উপজেলার রাজৈ ইউনিয়নের উরাহাটি গ্রামের ত্রিমোহনীসংলগ্ন খিরু নদী থেকে বুধবার বেলা দেড়টার দিকে অমিত রায় নামের ওই চিকিৎসকের মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস।

অমিত রায় ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও)।

বিষয়টি সময়ের কন্ঠস্বরকে নিশ্চিত করেছেন ভালুকা ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আল মামুন। তিনি বলেন, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নৌকাডুবির এই ঘটনা ঘটে।

ভালুকা উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ২০ চিকিৎসকের একটি দল মঙ্গলবার একটি নৌকা ভাড়া করে খিরু নদীতে ঘুরতে যায়। ফেরার পথে একটি বালুবোঝাই ট্রলারের ধাক্কায় নৌকাটি ডুবে যায়।

তিনি জানান, দুর্ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা অনেককে উদ্ধার করেন। কয়েকজন সাঁতরে তীরে উঠে আসেন। আরএমও অমিত রায় ও তানভীরকে তখন পাওয়া যায়নি।

ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল রাত সোয়া ১২টার দিকে তানভীর নামের এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করে। এরপর বুধবার দুপুরে পাওয়া যায় অমিতের মরদেহ।

Leave a Comment