কোচিং সেন্টারে জবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

রাজধানীর উত্তরার ৬নং সেক্টরের একটি কোচিং সেন্টার থেকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ মেসবাহের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে উত্তরা পূর্ব থানা পুলিশ।

রবিবার রাতে মেসবাহের মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত মোহাম্মদ মেসবাহ জগন্নাথ বিদ্যালয়ের জেনেটিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী।

আজ সোমবার (২৩ আগস্ট) সকালে তার লাশ ময়না তদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে উত্তরা পূর্ব থানা।

মেসবাহের সহপাঠীরা জানান, বেশকিছুদিন ধরেই সে বিষন্নতায় ভুগছিলো। অনেকে মনে করছে প্রেমঘটিত কারণে আত্মহত্যা করেছে সে। কয়েকদিন ধরে সে মেয়েদের সহ্য করতে পারছিল না।

উত্তরা পূর্ব থানার ওসি জহিরুল ইসলাম জানান, করোনার আগে তিনভাই মিলে একটি কোচিং সেন্টার চালু করে, সেখানে তিনভাই একসাথে থাকতো। আমরা ধারণা করছি এটি আত্মহত্যা। ময়না তদন্তের জন্য লাশ শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। ময়না তন্তদের পর মৃত্যুর সঠিক কারণ নিশ্চিত করা হবে বলে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোস্তফা কামাল বলেন, আমরা বিষয়টি জেনেছি। আমরা তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা চালাচ্ছি এবং মেডিকেলে আমাদের প্রতিনিধি পাঠাচ্ছি।

Leave a Comment