ভিন্ন স্বাদের খবর

খালেদা জিয়ার ১১ মামলার শুনানি ২০ অক্টোবর

বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা হত্যা ও রাষ্ট্রদ্রোহের মামলাসহ মোট ১১টি মামলা শুনানির জন্য দিন রেখেছে আদালত। আগামী ২০ অক্টোবর মামলাগুলোর শুনানি হবে।

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশ শুনানির এ তারিখ রাখেন বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে। পরে বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী জিয়া উদ্দিন জিয়া।

গতবছর ১০ আগস্ট এই ১১ মামলার শুনানির জন্য তারিখ ধার্য ছিল। তবে করোনা মহামারির কারণে আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ থাকায় তা এতদিন হয়নি। ফলে শুনানির জন্য নতুন দিন রেখেছে আদালত।

খালেদার বিরুদ্ধে ১১টি মামলার মধ্যে দারুস সালাম থানায় রয়েছে নাশকতার আট মামলা, যাত্রাবাড়ী থানার একটি হত্যা ও একটি নাশকতার মামলা এবং সিএমএম কোর্টে রয়েছে একটি রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা। মামলাগুলোর কার্যক্রম খালেদা জিয়ার পক্ষে সাময়িক স্থগিত করেছিল হাইকোর্ট।

মামলাগুলোর মধ্যে যাত্রাবাড়ী থানার একটি হত্যা মামলায় চার্জশিট গ্রহণের বিষয়ে শুনানির কথা ছিল গত বছরের ১০ আগস্ট। ওই দিনই অপর ১০ মামলার ওপর চার্জ শুনানির দিন ধার্য ছিল।

মুক্তিযুদ্ধে শহীদদের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার অভিযোগে ২০১৬ সালের ২৫ জানুয়ারি আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলাটি দায়ের করা হয়।

২০১৫ সালের ২৩ জানুয়ারি রাতে যাত্রাবাড়ীর কাঠেরপুল এলাকায় গ্লোরি পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসে পেট্রল বোমা হামলা হয়। এতে বাসের ২৯ যাত্রী দগ্ধ হন। পরে তাদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ১ ফেব্রুয়ারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান নূর আলম (৬০) নামের এক যাত্রী।

ওই ঘটনায় ২০১৫ সালের ২৪ জানুয়ারি খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা করেন থানার উপ-পরিদর্শক এসআই কে এম নুরুজ্জামান। ওই বছরের ৬ মে খালেদা জিয়াসহ ৩৮ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন ডিবি পুলিশের পরিদর্শক বশির আহমেদ।

২০১৫ সালে দারুস সালাম থানা এলাকায় নাশকতার অভিযোগে আটটি মামলা দায়ের করা হয়। এই আট মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে আসামি করা হয়।

২০১৭ সালের বিভিন্ন সময়ে মামলাগুলোয় অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ।

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button