আড়াইহাজারে তিন স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি, এএসআই গুলিবিদ্ধসহ আহত ৩

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার স্থানীয় গোপালদী বাজারে তিনটি স্বর্ণালঙ্কারের দোকানে দুর্ষর্ধ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে পুলিশ ডাকাতদের প্রতিরোধ করতে গেলে ডাকাতরা উল্টো গুলি ছুড়ে। এ সময় স্থানীয় গোপালদী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই সোহরাব হোসেন গুলিবিদ্ধসহ ডাকাতের হামলায় আহত হয়েছেন তিনজন।

আহতদের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত ‘আমির’ স্বর্ণালয়ের কর্মচারি রাতুল, ‘বিষ্ণ প্রিয়া’ স্বর্ণালয়ের কর্মচারি সুদাশন ও ‘ত্রীয়া’ স্বর্ণালয়ের মালিক বলাই। এ সময় ডাকাতরা দোকানঘরে ঢুকে প্রায় ১৪ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার ও ১ লাখ ২০ হাজার টাকা লুট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এএসআই সোহরাব হোসেনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে রাতেই আড়াইহাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসা নিতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়। তাকে চিকিৎসা শেষে আড়াইহাজার থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

আড়াইহাজার থানার ওসি তদন্ত জোবায়ের আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গত মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে রাতেই আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান মোল্লাসহ পুলিশের অন্যান্য সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

বুধবার নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম (পিপিএম) ও (গ-সার্কেল) আবীর হোসেন, আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিসুর রহমান মোল্লা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন।

এদিকে ডাকাত আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে পুরো বাজারের ব্যবসায়ীদের মধ্যে। জানা গেছে, কয়েক মাস আগেও একই বাজারের একটি পাইকারী দোকানের সিগারেটে গুদামে চুরির ঘটনা ঘটেছিল। চোরচক্র একটি ব্র্যান্ডের বিপুল সংখ্যক সিগারেট লুট করেছিল। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছিল।

ক্ষতিগ্রস্ত বলাই জানান, রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি তার ‘ত্রীয়া’ স্বর্ণালয়ের একটি সাঁটার বন্ধ করেন। অপর সাঁটারটি বন্ধ করতেই ডাকাত দলের তিন সদস্য পিস্তুল ও দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দোকানে ঢুকে পড়েন। তাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সিন্দুক ভেঙে স্বর্ণালঙ্কার ও অর্থ লুট করে নিয়ে যায়। এ সময় বাঁধা দিলে তাকে মারধর করা হয়।

‘আমির’ স্বর্ণালয়ের কর্মচারি রাতুল জানান, ডাতাকদল দোকানে ঢুকার পর বাঁধা দিলে তাকে উপযুপরি মারপিট করা হয়েছে। এ সময় দোকানে রক্ষিত অর্থসহ স্বর্ণালঙ্কার লুট করা হয়।

এদিকে ‘বিষ্ণ প্রিয়া’ স্বর্ণালয়ের কর্মচারি সুদাশন বলেন, দোকানের ভেতরে ঢুকে ডাকাতরা আমাকে গুলি করার হুমকী দেয়। এতে আমি বাঁধা দিলে তারা আমাকে পিটিয়ে আহত করে।

তিনি বলেন, ডাকাতরা স্বর্ণলঙ্কার ও অর্থ লুট করে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে আসা গোপালদী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনর্চাজের দায়িত্বে থাকা এসআই সফি’র কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এ ব্যাপারে পরে জানাবো। রাতে সবাই এসেছিলেন। আপনি ওসি স্যারের সঙ্গে কথা বলেন, আমি এ ব্যাপারে কিছু বলতে পারবো না, এই বলেই তিনি কলটি কেঁটে দেন।’

আড়াইহাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনিচুর রহমান মোল্লা ঘটনার সত্যতা স্বীকার বলেন, তিনটি দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছি। প্রতিরোধ করতে গেলে গোপালদী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই সোহরাব হোসেন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Comment