খেরসনের আঞ্চলিক প্রশাসনিক ভবন পুরোপুরি দখল করে নিয়েছে রাশিয়ার সেনাবাহিনী

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

ইউক্রেনের খেরসনের আঞ্চলিক প্রশাসনিক ভবন পুরোপুরি দখল করে নিয়েছে রাশিয়ার সেনাবাহিনী। স্থানীয় সময় আজ বৃহস্পতিবার ফেসবুকে এ তথ্য জানিয়েছেন খেরসনের প্রশাসনিক প্রধান হেনাদি লাহুতা। খবর বিবিসির।গতকাল বুধবার বন্দরনগর খেরসন নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেন রুশ সেনারা। কৃষ্ণসাগর উপকূলবর্তী এ শহরে প্রায় ২৫ লাখ মানুষের বসবাস। রাশিয়া এখন পর্যন্ত ইউক্রেনের যে কয়টি শহর দখলে নিয়েছে, সেগুলোর মধ্যে খেরসনই সবচেয়ে বড়।

খেরসন শহরটি কৌশলগতভাবে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার সংবাদদাতা অ্যান্ড্রু সিমনস। তিনি বলেন, এ শহর দিয়েই রাশিয়া অধিকৃত ক্রিমিয়া অঞ্চলের সঙ্গে ইউক্রেনের মূল ভূখণ্ডের সংযোগ ঘটে।

গত বৃহস্পতিবার ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের ঘোষণা দেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এর পর থেকে দেশজুড়ে ভয়াবহ সংঘাত চলছে। চলমান সংঘাতে ৪৯৮ রুশ সেনা নিহত হন ও ১ হাজার ৫৯৭ জন আহত হয়েছেন হয়েছে বলে জানিয়েছে মস্কো।

আঞ্চলিক প্রশাসনিক ভবন হাতছাড়া হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে হেনাদি লাহুতা বলেন, তাঁরা এখনো দায়িত্ব ছেড়ে দেননি। আঞ্চলিক বাসিন্দাদের সহায়তার জন্য কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। মানবিক সহায়তার অপেক্ষায় রয়েছেন তাঁরা।এদিকে গতকাল পর্যন্ত ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ, উত্তর-পূর্বাঞ্চলে খারকিভ, দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে মারিওপোল এবং উত্তরাঞ্চলের চেরনিহিভ শহরে বিমান ও গোলা হামলা বাড়িয়ে চলছিল রাশিয়া। খারকিভে রাশিয়ার ছত্রীসেনারা নেমে শহরটির দখল নেওয়ার চেষ্টা করছেন বলে জানা গেছে।