ইউক্রেনে সিরীয় ভাড়াটে সৈন্য নিয়োগ দিচ্ছে রাশিয়া

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ৩ মাস আগে

ইউক্রেনে যুদ্ধের জন্য সিরিয়ার ভাড়াটে যোদ্ধাদের রাশিয়া নিয়োগ দিচ্ছে বলে খবর বেরিয়েছে। দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল পত্রিকার প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে আজ সোমবার বিবিসি অনলাইনের লাইভে এ তথ্য জানানো হয়।

ইউক্রেনে রুশ হামলা আজ ১২তম দিনে গড়িয়েছে। দেশটির রাজধানী কিয়েভে সর্বাত্মক হামলা চালানোর জন্য রুশ বাহিনী প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে সতর্ক করেছেন ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা।খবরে বলা হয়, মার্কিন কর্মকর্তারা দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালকে বলেছেন, নগরযুদ্ধে দক্ষ সিরীয়দের নিয়োগ করছে রাশিয়া। উদ্দেশ্য, ইউক্রেন যুদ্ধে সিরিয়ার এই ভাড়াটে যোদ্ধাদের কাজে লাগানো।

অন্যদিকে, যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা কর্মকর্তাদের ভাষ্য, গত ৪৮ ঘণ্টায় ইউক্রেনে রুশ বাহিনী খুব একটা সুবিধা করতে পারেনি। তারা পরিকল্পনামাফিক ইউক্রেনে তাদের উদ্দেশ্য অর্জন করতে পারছে না।দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল বলছে, ইউক্রেনের গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলো দখল করার জন্য সড়কে সড়কে তুমুল লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে মস্কো।

এমন প্রেক্ষাপটে ইউক্রেন যুদ্ধের জন্য সিরিয়ার ভাড়াটে সেনাদের রাশিয়া নিয়োগ দিচ্ছে বলে খবর এল।তবে ঠিক কতজন সিরীয় ভাড়াটে যোদ্ধা রাশিয়ার হয়ে ইউক্রেন যুদ্ধে যোগ দিতে সম্মত হয়েছেন, সে সম্পর্কে কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

খবরে বলা হয়, মস্কোর কর্মকর্তাদের বিশ্বাস, সিরিয়ায় এক দশকের বেশি সময় ধরে গৃহযুদ্ধ চলছে। দীর্ঘ এ সংঘাতে নগরযুদ্ধে অভিজ্ঞ সিরীয় যোদ্ধাদের যদি ইউক্রেন যুদ্ধে মোতায়েন করা হয়, তাহলে তাঁরা রাজধানী কিয়েভসহ দেশটির গুরুত্বপূর্ণ শহর দখলের যুদ্ধে রাশিয়ার পক্ষে জোরাল ভূমিকা রাখতে পারবেন।

তবে মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তা বলছেন, সিরীয় ভাড়াটে যোদ্ধাদের কেউ কেউ ইতিমধ্যে রাশিয়ায় গেছেন। তাঁদের ইউক্রেনে মোতায়েনের প্রস্তুতি চলছে।সিরিয়ার একটি প্রকাশনার তথ্য অনুসারে, সিরীয় স্বেচ্ছাসেবকদের কাজের প্রস্তাব দিয়েছে রাশিয়া।

মস্কোর পক্ষ থেকে এই স্বেচ্ছাসেবকদের ২০০ থেকে ৩০০ মার্কিন ডলার সমমূল্যের বেতনের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। তাঁদের ইউক্রেনে যেতে হবে। সেখানে গিয়ে তাঁরা ছয় মাসের জন্য প্রহরী (গার্ড) হিসেবে কাজ করবেন।