প্রচ্ছদ বাংলাদেশ জেলা

নিজের রুমে বসায় রোগীর মাথা ফা*টালেন ডাক্তার!

88
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

নিজের কক্ষে বসার কারণে এক রোগীর মাথা ফা*টিয়ে দিয়েছেন চিকিৎসক। সোমবার দুপুরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দন্ত বিভাগে এ ঘটনা ঘটে। ওই চিকিৎসকের নাম একেএম আনিসুর রহমান বাবলু। সে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দন্ত বিভাগের আবাসিক সার্জন। আ*হত রোগীর নাম তরুন মিয়া।

জেলার ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উচাখিলা থেকে দাঁতের চিকিৎসার জন্য সোমবার ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের দন্ত বিভাগে আসে এ তরুণ। সে ঈশ্বরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী।

তরুন মিয়া অ*ভিযোগ করেন, সোমবার সকাল ১০টার দিকে হাসপাতালের দন্ত বিভাগের টিকিট কেটে লাইনে দাঁড়াই। ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ওই চিকিৎসক লাইনের ১৫-২০ জন রোগী দেখে হাসপাতাল থেকে বের হয়ে যান। এ সময় আমি লাইনে অপেক্ষমান রোগীদের সিরিয়ালে প্রথম রোগী আমিই ছিলাম। আধা ঘণ্টা পার হয়ে গেলেও ডাক্তার না আসায় দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকে অসহনীয় ব্যথা নিয়ে অবশেষে ওই চিকিৎসকের কক্ষে রোগীর চেয়ারে বসে অপেক্ষা করি।

এরপর বেলা ১২টার দিকে ডা. বাবলু আসেন এবং আমি ভেতরে কেন বসে আছি, জানতে চান। আমি বলি, দাঁতের ব্য*থা সহ্য করতে না পেরে আপনার রুমে এসে বসেছি। এক দুই কথায় তার সঙ্গে বাকবিতণ্ডা হয় এবং আমার সঙ্গে দু*র্ব্যবহার শুরু করে। এক পর্যায়ে চিকিৎসক একেএম আনিসুর রহমান বাবলু তার কক্ষের দরজা বন্ধ করে আমাকে কি*ল-ঘু*ষি মা*রে। আমি দরজা খুলে রুম থেকে বের হয়ে যেতে চাইলে চেম্বারে কাঠের গোল টুল দিয়ে আ*ঘাত করে মাথা ফাঁ*টিয়ে দেয়।

আরও পড়ুন:  *মহানবী (সা.)কে নিয়ে কটূক্তি, পলিটেকনিক শি'ক্ষার্থী আটক *

পরে হাসপাতালে কর্তব্যরত আনসার, পুলিশ সদস্য ও রোগীর লোকজন আমাকে উ*দ্ধার করে হাসপাতালের ৮নং ওয়ার্ডে ভর্তি করে। আমার মাথায় দুটি সেলাই লেগেছে এবং হাতে ও বুকে আ*ঘাত পেয়েছি। র**াক্ত অবস্থায় বিষয়টি হাসপাতালের উপ-পরিচালককে জানাই। উপ-পরিচালক আমাকে শান্তনা দিয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দিতে বলেন।

রোগীর মাথা ফাঁ*টানোর অভিযোগ অস্বীকার করে ডা. একেএম আনিসুর রহমান বাবলু বলেন, রোগী দেখার ফাঁকে বেলা ১১টার দিকে মেডিকেল কলেজের ডেন্টাল বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থীদের একটি ক্লাস নিতে পাশের বিল্ডিংয়ে গেছিলাম। এসে দেখি সব রোগী লাইনে দাঁড়িয়ে আছে, অথচ ওই রোগী আমার কক্ষের ভেতরে বসে আছে। এ নিয়ে ওই রোগীর কাছে জানতে চাইলে সে প্রথমে ক্ষি*প্ত হয়ে ওঠে এবং আমার সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে।

আরও পড়ুন:  ময়মনসিংহে হামলার প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন

চিকিৎসক আরো বলেন, এরপর কথা কা*টাকা*টির একপর্যায়ে সে খুব বা*জে আচরণ করে আমাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় এবং শার্ট-প্যান্ট ছিঁড়ে যায়। ধাক্কাধাক্কির সময় আমার কক্ষের টেবিলের কোণায় লেগে আমার আঙ্গুল কে*টে যায় এবং ওই রোগীও মেঝেতে পড়ে আ*ঘাতপ্রাপ্ত হয়। পরে আনসার ও পুলিশ ডেকে তার চিকিৎসার জন্য জরুরি বিভাগে পাঠনো হয়।

দন্ত বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. মনোয়ারুল ইসলাম বলেন, কর্মচারীদের মাধ্যমে ঘটনার খবর শুনে আমি ওই চিকিৎসকের কক্ষে যাই। এ সময় ডা. বাবলু ঘটনাটি আমাকে বলেন।

বিভাগীয় প্রধান বলেন, চিকিৎসক ও রোগীর মধ্যে হা*তাহাতির একপর্যায়ে ওই রোগী পাকা মেঝেতে পড়ে গেলে তার মাথা ফেঁ*টে যায় বলে ডা. বাবলু জানায়

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি