বাইডেনসহ তাঁর সরকারের বেশ কয়েকজন কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে রাশিয়া

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ২ মাস আগে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে রাশিয়া। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই তথ্য জানিয়েছে। এ ছাড়া মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিন, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান এবং কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা (সিআইএ) প্রধান উইলিয়াম বার্নসের ওপরও নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে রাশিয়া।

এর আগে আজকে রাশিয়ার সাবেক প্রেসিডেন্ট দিমিত্রি মেদভেদেভসহ নতুন করে দেশটির ৩৭০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের ওপর নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে তাঁদের সম্পদ জব্দ করা হবে ও ভ্রমণ নিষিদ্ধ থাকবে।এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ, রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভাও রয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার ইউক্রেনে রাশিয়ার সামরিক অভিযান নিয়ে দেওয়া লাইভ আপডেটে এই তথ্য জানায় বিবিসি অনলাইন। রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, অন্যরাও ক্ষতির মুখে পড়বে। এদিকে রুশ সংবাদমাধ্যম আরটি ক্রেমলিনের এক বিবৃতির বরাতে জানিয়েছে, এই নিষেধাজ্ঞা বাইডেন প্রশাসনের নেওয়া রাশিয়া বিরোধী পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়া হিসেবে দেওয়া হয়েছে।

ইউক্রেনে হামলা শুরুর পর রাশিয়ার ওপর একের পর এক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্যসহ পশ্চিমা দেশগুলো। তারা নিষেধাজ্ঞা দিয়ে রাশিয়ার অর্থনীতি ধসিয়ে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছে। এসব নিষেধাজ্ঞাকে অবৈধ ঘোষণা দিয়ে পুতিন বলেছেন, নিষেধাজ্ঞা আরোপ রাশিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণার শামিল।

রুশ নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা অন্য ব্যক্তিরা হলেন-হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জেন সাকি, সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন এবং বাইডেনের ছেলে হান্টার, যিনি ইউক্রেনের জ্বালানি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ব্যবসা করেন।তালিকায় থাকা ব্যক্তিরা রাশিয়ান ফেডারেশনে ঢুকতে পারবেন না। যদিও ক্রেমলিন জানিয়েছে, মস্কো আমেরিকান কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করবে না, যদি তারা রাশিয়ার জাতীয় স্বার্থ পূরণ করে। অদূর ভবিষ্যতে এই তালিকায় আরও নাম যুক্ত করা হবে।