প্রচ্ছদ জানা অজানা

করোনার এই সময়ে প্রতিদিন কতটা ভিটামিন ডি গ্রহণ জরুরি

32
করোনার এই সময়ে প্রতিদিন কতটা ভিটামিন ডি গ্রহণ জরুরি
পড়া যাবে: < 1 minute

লাইফস্টাইল ডেস্ক: করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সবাই স্বাস্থ্য সম্পর্কে অতিরিক্ত সতর্ক হয়ে উঠেছেন। করোনা মোকাবিলায় বিশেষজ্ঞরা ভিটামিন ও খনিজ গ্রহণের ওপর অতিরিক্ত গুরুত্ব দিচ্ছেন। তাদের মতে, এগুলো শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

গবেষণায় দেখা গেছে, ভিটামিন ডি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় বেশ কার্যকর। এ কারণে অনেকেই গুরুত্ব বুঝে এই ভিটামিন গ্রহণ শুরু করেছেন। তবে বেশিরভাগ মানুষেরই জানা নেই কোন বয়সে দৈনিক কি পরিমাণে ভিটামিন ডি গ্রহণ করা দরকার। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভিটামিন ডি বয়স অনুযায়ী গ্রহণ করতে হবে। যেমন- শূন্য থেকে ১ বছর বয়সীদের প্রতিদিন  ৪০০ আইইউ,  ১ থেকে ১৩ বছর বয়সীদের ৬০০ আইইড, ১৪ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের ৬০০ আইইউ, পূর্ণ বয়স্ক অর্থাৎ ১৯ থেকে ৭০ বছর বয়সীদের ৬০০ আইইউ, ৭১ বছরের বেশি বয়সীদের ৮০০ আইইউ, গর্ভবতী ও বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েদের ৬০০ আইইউ পরিমাণে ভিটামিন ডি গ্রহণ করা দরকার।

আরও পড়ুন:  বাসর রাতে স্বামীকে অবশ্যই ১০টি প্রশ্ন করবেন, ৭ নম্বরটা গুরুত্বপূর্ণ

ভিটামিন ডিয়ের অন্যতম প্রধান উৎস হচ্ছে সূর্যের আলো। এটি থেকে সহজেই শরীরে ভিটামিন ডি পাওয়া যায়। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সূর্যের আলো থেকে ভিটামিন ডি গ্রহণের সবচেয়ে ভালো সময় হচ্ছে সকাল ১০ টা থেকে দুপুর ৩ টা পর্যন্ত। এ সময় সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মি সবচেয়ে তীব্র থাকে। তাদের মতে,এ সময়ের মধ্যে একটানা ১৫ মিনিট রোদে বসে থাকলেই শরীরের প্রয়োজনীয় ভিটামিন ডিয়ের ঘাটতি পূরণ হয়। দীর্ঘসময় রোদে বসে থাকা মোটেও স্বাস্থ্যকর নয়। এতে ত্বকের ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে।

এছাড়া বিভিন্ন খাবার থেকেও দিনের চাহিদার ভিটামিনের ডিয়ের ঘাটতি পূরণ হয়। এর মধ্যে বিভিন্ন সামুদ্রিক মাছ, পনির, মাশরুম, দুধ, ডিম, গরুর কলিজা, মুরগির বুকের মাংস উল্লেখযোগ্য। চাইলে চিকিৎসকের পরামর্শে ঘাটতি পূরণে ভিটামিন ডিয়ের সাপ্লিমেন্টও গ্রহণ করতে পারেন। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

আরও পড়ুন:  আমের গুণের শেষ নেই, নির্ভয়ে খান এই শর্তগুলো মেনে

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 9
    Shares