রাশিয়ার সর্বাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র কিনজাল দিয়ে ইউক্রেনের একটি অস্ত্রভাণ্ডার ধ্বংস

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ২ মাস আগে

ইউক্রেন অভিযানে অত্যাধুনিক অস্ত্র ব্যবহারের কথা প্রথমবারের মতো স্বীকার করেছে রাশিয়া। নিজেদের তৈরি সর্বাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র ‘কিনজাল’ দিয়ে ইউক্রেনের একটি অস্ত্রভাণ্ডার ধ্বংস করার কথা জানিয়েছে মস্কো। গতকাল শুক্রবার চালানো ওই হামলার কথা আজ শনিবার প্রকাশ করে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।এই হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র কিনজাল আসলে কতটা শক্তিশালী?

ইউক্রেনে কিনজাল দিয়ে হামলার প্রসঙ্গে মস্কো বলেছে, কিনজালের হামলায় ইউক্রেনের ভূগর্ভস্থ অস্ত্রের গুদাম ধ্বংস হয়েছে। ওই গুদামে ক্ষেপণাস্ত্র, গোলাবারুদসহ নানা ধরনের অস্ত্র মজুদ ছিল।হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র সেগুলোকেই বলা হয়, যেগুলো শব্দের গতির চেয়ে অন্তত ৫ গুণ বা তার চেয়ে বেশি গতিতে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম।রাশিয়া, চীন, যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও আরো অন্তত পাঁচটি দেশ হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে কাজ করছে।

রাশিয়া তার হাইপারসনিক ক্ষেপণাস্ত্র কিনজালের কথা প্রকাশ করে ২০১৮ সালে। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন  কিনজালকে ‘নিখুঁত অস্ত্র’ হিসেবে অভিহিত করেন।কিনজাল ক্ষেপণাস্ত্র বাতাসের গতির (সেকেন্ডে ৩৪৩ মিটার) চেয়ে ১০ গুণ বেশি গতিতে গিয়ে দুই হাজার কিলোমিটার বা তার বেশি দূরের লক্ষ্যবস্তুতেও আঘাত হানতে পারে।

কিনজাল ক্ষেপণাস্ত্র এতই অত্যাধুনিক যে, ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে ফাঁকি দিতে সক্ষম। এই ক্ষেপণাস্ত্র পারমাণবিক ওয়ারএহডও বহন করতে পারে। ভূগর্ভস্থ অস্ত্রভাণ্ডারও ধ্বংস করতে সক্ষম এই ক্ষেপণাস্ত্র।