প্রচ্ছদ খেলা ক্রিকেট

একাদশ থেকে বাদ পড়াতে অবসর নিতে চেয়েছিলেন ব্রড

8
Sportszone24

পড়া যাবে: < 1 minute

ক্যারিয়ারের এই সময়ে এসে এমন পরিস্থিতিতে পড়বেন, কল্পনাও করেননি স্টুয়ার্ট ব্রড। যিনি ইংল্যান্ডের টেস্ট ইতিহাসের দ্বিতীয় সফলতম বোলার, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সর্বশেষ সিরিজও যার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ভর করেই জিতেছে ইংলিশরা, সেই ব্রডকেই প্রথম টেস্ট থেকে বাদ দেওয়া হয়েছিল।

অ্যাগিয়াস বোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে খেলবেন না, টেস্ট শুরুর ঠিক আগের দিন রাতে দলটির প্রথমবার অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া বেন স্টোকস এমন কথা জানিয়ে দেন ব্রডকে। এরপর থেকে আর স্বাভাবিক থাকতে পারছিলেন না তিনি। এমনকি অবসর নেওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ব্রড।

সম্প্রতি দ্য মেইলকে ব্রড বলেছেন, “(দল থেকে বাদ পড়ার পর) অবসরের চিন্তা মাথায় এসেছিল কি না? হ্যাঁ! একশ ভাগ। কারণ আমি তখন একদমই ভেঙে পড়েছিলাম। আমার মনে পড়ে না যে কখনও এতটা মর্মাহত হয়েছি কি না। আগে যখন বাদ পড়তাম, নিজেই নিজেকে বলতাম, ঠিক আছে, ভালো সিদ্ধান্ত। এর বিপরীতে তর্ক করার উপায় নেই।”

আরও পড়ুন:  প্রতি মাসে ১ লাখ টাকা বেতন পাচ্ছে আকবর আলিরা

তবে সিরিজের বাকি দুই ম্যাচে একাদশে সুযোগ পেয়ে জবাব দিয়েছেন ব্রড। দুই ম্যাচে ১০ উইকেট শিকার করে হয়েছেন সিরিজ সেরা। তার প্রথম টেস্টে দলে সুযোগ না পাওয়াতে দল হারলেও বাকি দুই টেস্টে তার উজ্জ্বল পারফরম্যান্সে সিরিজ নিজেদের করে ইংল্যান্ড। এর মধ্যে ৫০০ উইকেট শিকারের মাইলফলক স্পর্শ করেন তিনি।

তবে কি টেস্টে ৬০০ উইকেট শিকার করতে পারবেন ব্রড? তিনি আরও বলেন, “অবশ্য আমি পারব। জিমি যখন ৫০০ উইকেট পায়, তার বয়স ছিল ৩৫ বছর ১ মাস। আমার বয়স এখন ৩৪ বছর ১ মাস। জিমি প্রায় ৬০০ উইকেট পেয়ে গেছে। তাই পরিসংখ্যানগতভাবে আমিও পাবো নিশ্চিত।”

আরও পড়ুন:  জয় দিয়ে ওয়ানডে বিশ্বকাপ সুপার লিগ শুরু করল ইংল্যান্ড

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @banglanewsmagazine আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

  • 6
    Shares