সৌদি আরবে শুক্রবার পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেছে

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ২ মাস আগে

সৌদি আরবে আজ শুক্রবার পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেছে। সে অনুযায়ী আগামীকাল শনিবার থেকে দেশটিতে রোজা শুরু হচ্ছে। খবর সৌদি আরবভিত্তিক সংবাদমাধ্যম সৌদি গেজেটের।রমজান মাসের চাঁদ দেখা নিয়ে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেছে সৌদি আরবের রয়্যাল কোর্ট। বিবৃতিতে বলা হয়, ‘১৪৪৩ হিজরি সনের রমজান মাসের প্রথম দিন শুরু হবে শনিবার (২ এপ্রিল)।’

২০১৯ সালের পর এবারই প্রথম সৌদি আরবে রমজান মাসে করোনাভাইরাসের বিধিনিষেধ থাকছে না। গত বছর করোনা মহামারির কারণে দেশটির পবিত্র দুটি মসজিদ মক্কার মসজিদুল হারাম ও মদিনার মসজিদে নববিতে তারাবিহর নামাজ ২০ রাকাত থেকে কমিয়ে ১০ রাকাত করা হয়।

খালিজ টাইমস জানিয়েছে, মালয়েশিয়া, ব্রুনাই, জাপান ও ইন্দোনেশিয়ায় পবিত্র রমজান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। তাই আগামীকাল শনিবার থেকে ওই সব দেশে রোজা শুরু হচ্ছে না। শনিবার দিবাগত রাতে তারাবি নামাজ আদায় করা হবে এবং ওই রাতের শেষ প্রহরে সেহরি খেয়ে ৩ এপ্রিল প্রথম রোজা হবে ওই দেশগুলোতে।

এদিকে বাংলাদেশে পবিত্র রমজান মাস কবে থেকে শুরু হবে তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে আগামীকাল শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত। এদিন ৬টা ৩০ মিনিটে বৈঠকে বসবে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি। এরপরই জানা যাবে রমজান শুরুর নির্দিষ্ট তারিখ। শুক্রবার (১ এপ্রিল) ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় হিজরি ১৪৪৩ সনের রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেলে রোববার (৩ এপ্রিল) থেকে রমজান মাস গণনা শুরু হবে এবং মুসলমানরা রোজা রাখা শুরু করবেন। সেক্ষেত্রে শনিবার রাতেই এশার নামাজের পর ২০ রাকাত তারাবি নামাজ পড়া শুরু হবে, রোজা রাখতে শেষ রাতে প্রথম সাহরিও খাবেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

অন্যদিকে শনিবার চাঁদ দেখা না গেলে রোববার শাবান মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হবে, রমজান মাস গণনা শুরু হবে সোমবার (৪ এপ্রিল)। এক্ষেত্রে রোববার এশার নামাজের পর তারাবি নামাজ পড়া শুরু হবে এবং শেষ রাতে খেতে হবে সাহরি। সৌদির চাঁদ দেখা অনুসারে আফগানিস্তান, আর্মেনিয়া, অষ্ট্রিয়া, আজারবাইজান, বাহরাইন, বেলজিয়াম, বলিভিয়া, বুরকিনা ফাসো, ডেনমার্ক, কুয়েত, সুদানসহ আরও অনেক দেশ একই দিন থেকে রোজা পালন শুরু করে।