নারী মক্কেলকে মামলাসংক্রান্ত কাজের কথা বলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ ও এর ভিডিও ধারণ

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ২ মাস আগে

বাগেরহাটে নারী মক্কেলকে মামলাসংক্রান্ত কাজের কথা বলে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ ও এর ভিডিও ধারণ করার অভিযোগে করা মামলায় এক আইনজীবীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওই আইনজীবীর নাম ফকির ইফতেখারুল ইসলাম ওরফে রানা (৫৫)।আইনজীবী ফকির ইফতেখারুল ইসলাম বাংলাদেশ তাঁতী লীগ বাগেরহাট জেলা শাখার সদস্যসচিব।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ওই নারী বাগেরহাটের পারিবারিক আদালতে তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছিলেন। অভিযুক্ত ইফতেখারুল ইসলাম ওই মামলায় ২০১৮ সাল থেকে তাঁর আইনজীবী হিসেবে নিযুক্ত। সেই সূত্রে ওই নারী বিভিন্ন সময় ইফতেখারুল ইসলামের চেম্বারে যেতেন।

এ সুযোগে বিভিন্ন সময় তাঁকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন ওই আইনজীবী। একপর্যায়ে গত ২৯ জানুয়ারি ইফতেখারুল মামলাসংক্রান্ত প্রয়োজনের কথা বলে তাঁর বাড়িতে অবস্থিত চেম্বারে ওই নারীকে ডেকে নেন। এরপর তাঁকে ধর্ষণ ও এর ভিডিও ধারণ করেন।

গতকাল শুক্রবার বিকেলে বাগেরহাট পৌর শহরে নিজের বাড়ি থেকে ইফতেখারুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে দুপুরে ওই মক্কেল নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে তাঁর বিরুদ্ধে বাগেরহাট সদর মডেল থানায় মামলা করেন।বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে এম আজিজুল ইসলাম আজ শনিবার দুপুরে মুঠোফোনে বলেন, ওই নারী থানায় এসে অভিযুক্ত আইনজীবী ইফতেখারুল ইসলামের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে এজাহার দায়ের করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ইফতেখারুলকে গ্রেপ্তার করে। তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হচ্ছে।