প্রচ্ছদ বাংলাদেশ

১০০ কোটির সম্পত্তি ছেড়ে সন্ন্যাসী হচ্ছেন এরা!

11
১০০ কোটির সম্পত্তি ছেড়ে সন্ন্যাসী হচ্ছেন এরা!

পড়া যাবে: < 1 minute

১০০ কোটি টাকার সম্পত্তি, মাত্র ৩ বছরের শি’শুকন্যা, সব ছেড়ে সন্ন্যাস নিতে চলেছেন ভা’রতের মধ্যপ্রদেশের এক জৈন দম্পতি। তাদের এই সিদ্ধান্তে শুধু পরিবার নয়, হতবাক গোটা সম্প্রদায়।

২৩ সেপ্টেম্বর সুধামা’র্গি জৈন আচার্য রামলাল মহারাজের কাছে তারা দীক্ষা নেবেন। সন্ন্যাসী হওয়ার এটাই প্রথম ধাপ। সুমিত রাঠৌর (৩৫) এবং তার স্ত্রী’ অনামিকা (৩৫) চার বছর আগে বিয়ে হয়েছে। ভা’রতের মধ্যপ্রদেশের নিমাচের বাসিন্দা তারা। অনামিকা হলেন- নিমাচের প্রথম গোল্ড মেডালিস্ট।

অষ্টম শ্রেণির বোর্ডের পরীক্ষায় তিনি এই সম্মান পান। পরে রাজস্থানের মোদি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ থেকে পাস করে হিন্দুস্তান জিঙ্কে কাজ শুরু করেন। অন্যদিকে সুমিত লন্ডন থেকে এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট ম্যানেজমেন্টে ডিপ্লোমা করেছেন। সেখানেই দু’বছর থাকার পর পারিবারিক ব্যবসা সামলাতে নিমাচে ফিরে আসেন।

আরও পড়ুন:  পৃথিবীর সবচেয়ে দামি মশলা, এক কেজির দাম শুনলে অবাক হবেন!

২২ অাগস্ট সুমিত ও তাঁর পরিবার সুরাতে জৈন আচার্য রামলালের এক অনুষ্ঠানে যান। সেখানেই সুমিত তার সিদ্ধান্তের কথা আচার্যকে জানান। আচার্য রামলাল স্ত্রী’র অনুমতি চাইতে বললে অনামিকা জানান, তিনিও সন্ন্যাসী হতে চান।

সুমিত বা অনামিকা অবশ্য তাদের পরিবারের কাছে আগেই সন্ন্যাসী হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। বেশ কয়েক মাস আগে থেকেই তারা সন্ন্যাসী হওয়ার প্রস্তুতি শুরুও করে দিয়েছিলেন।

অনামিকার বাবা অশোক চান্ডালিয়া যিনি এক সময়ে বিজেপির নিমাচ জে’লা সভাপতি ছিলেন, তিনি জানান অনামিকা-সুমিতের মে’য়ে ইভিয়া যখন মাত্র ৮ মাসের, তখন থেকে তারা এই পথে হাঁটার ইচ্ছা প্রকাশ করেন।

তখন থেকেই আলাদা থাকতে শুরু করেন। দু’জনের পরিবারই তাদের বোঝানোর জন্য আপ্রা’ণ চেষ্টা করে কিন্তু কোনো লাভ হয়নি।

আরও পড়ুন:  মা হওয়ার ১১ সপ্তাহ পরে, আরও একটি শিশু জন্ম দিল এই মহিলা, ডাক্তারেরা হতবাক

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @banglanewsmagazine আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

  • 7
    Shares