মোশাররফ রুবেলের মৃত্যুতে বাংলাদেশের ক্রিকেট অঙ্গন শোকে স্তব্ধ

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ১ মাস আগে

দিনের শুরুতে আসে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক খেলোয়াড় ও ম্যাচ রেফারি সামিউর রহমান সামির মৃত্যু সংবাদ। বিকেল গড়াতে চলে গেলেন জাতীয় দলের আরেক সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল। তিন বছর ব্রেন টিউমারের সঙ্গে লড়াই করে শেষ পর্যন্ত হেরে যান এ বাঁহাতি স্পিনার।  এই মৃত্যুতে বিষাদের কালো ছায়া নেমে এসেছে দেশের ক্রিকেট অঙ্গনে।

বড্ড তাড়াতাড়ি চলে গেলেন ক্রিকেটার মোশররফ হোসেন রুবেল। বাঁহাতি এই স্পিনার মঙ্গলবার ইউনাইটেড হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ক্যান্সারের কাছে হার মেনে মাত্র ৪০ বছর বয়সে রুবেলের বিদায়ে দেশের ক্রিকেটাঙ্গনে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। তার জানাজার নামাজ মঙ্গলবার রাত ১০টায় মিরপুর শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার হঠাৎ করেই শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে নেওয়া হয় রুবেলকে। তবে ইউনাইটেড হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা বিকেল ৫টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জীবনযুদ্ধে হার মেনে নেন এ ক্রিকেটার।

রুবেল মৃত্যুসংবাদ জানার পর শোকে বিহ্বল হয়ে পড়ে অনেক সাবেক ও বর্তমান ক্রিকেটার। সামাজিকমাধ্যমে শোক প্রকাশ করেন তারা। টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ রুবেলের সঙ্গে নিজের একটি ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে লিখেছেন, ‘ব্রেন টিউমারের সঙ্গে লড়াই করা মোশাররফ হোসেন রুবেল মারা গেছেন। খবরটা শুনে আমি খুবই মর্মাহত। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। সর্বশক্তিমান আল্লাহ তাকে জান্নাতবাসী করুন!’

ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল রুবেলের একটি সাদাকালো ছবি পোস্ট করে শোক প্রকাশ করেছেন ফেসবুকে।টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক লিখেছেন, ‘আজ সন্ধ্যায় রুবেল ভাইয়ের মারা যাওয়ার খবর শুনে খুব খারাপ লাগলো।আল্লাহ তাকে জান্নাতবাসী করুন!’

শীর্ষ অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান তার ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘দীর্ঘদিনের সতীর্থ ও দেশের অন্যতম সেরা স্পিনার মোশাররফ হোসেন রুবেলের অকাল মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত। মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করছি আর শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি থাকলো আমাদের সমবেদনা।’

অসময়ে রুবেলকে হারিয়ে যেন মানতেই পারছেন না উইকেটরক্ষক ব্যাটার এনামুল হক বিজয়, ‘তোমাকে অনেক ভলোবাসতাম ভাই। তোমাকে অনেক মিস করবো ভাই। আল্লাহ তোমাকে জান্নাত দান করবেন ইনশাআল্লাহ।’মর্মাহত জাতীয় দলের আরেক উইকেটরক্ষক ব্যাটার লিটন দাসও, ‘মোশাররফ রুবেল ভাইয়ের খবর শুনে মর্মাহত। শান্তিতে বিশ্রাম নিন।’

সময়ের অন্যতম সেরা পেসার তাসকিন আহমেদ প্রার্থনা করে লিখেছেন, ‘বাংলাদেশের সাবেক বাঁহাতি স্পিনার মোশাররফ হোসেন রুবেল আজ মারা গেছেন! ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মহান আল্লাহ তাকে জান্নাতুল ফেরদৌস নসিব করুন!’

ইমরুল কায়েস যেন স্বজন হারানোর বেদনায় পুড়ছেন, ‘দুই বছর আগে এই একই দিনে, আমি আমার বাবাকে হারিয়েছি এবং আজ আমি একজন কাছের মানুষকে হারালাম। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রজিউন। আল্লাহ তাকে জান্নাতুল ফেরদৌস দান করুন।’

২০১৯ সালে ব্রেন টিউমার ধরা পড়ে রুবেলের। সে সময় সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নিউরো সার্জন এলভিন হংয়ের তত্ত্বাবধানে সফল অস্ত্রোপচার হয় তার। চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে ওঠেন। কিন্তু কয়েক বছর না যেতেই ফের দেখা দেয় মরণব্যাধি।

২০০৮ সালে চট্টগ্রামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক বাঁহাতি স্পিনার মোশাররফ হোসেন রুবেলের। সবশেষ ম্যাচ খেলেন ২০১৬ সালে মিরপুরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। ৫ ওয়ানডেতে তার শিকার ৪ উইকেট। সেরা বোলিং ২৪ রানে ৩ উইকেট।

ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম সেরা এই বোলার ১১২টি ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচ খেলে ২৯.০৩ গড়ে  নেন ৩৯২ উইকেট। লিস্ট-এ ক্রিকেটে ৫৬ ম্যাচে তার শিকার ৬০ উইকেট। ক্যারিয়ারে শেষবারের মতো বল করেন ২০১৯ বিপিএলে। ওই আসরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের হয়ে একটি ম্যাচই খেলেছিলেন তিনি।