ঈদ যাত্রায় সহজ ডটকমকে কাজ দেওয়ায় রেলের পুরো টিকিটিং ব্যবস্থায় ধস

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ৪ সপ্তাহ আগে

বাংলাদেশ রেলওয়ের নিজস্ব আইটির সক্ষমতা না থাকায় টিকিটের ‘সার্ভিস প্রোপ্রাইটর’ হিসেবে কাজ করছে সহজ লিমিটেড। কিন্তু সহজের দায়িত্ব নেওয়ার এক মাসের বেশি হলেও টিকিটিং ব্যবস্থায় ভোগান্তি কমেনি যাত্রীদের। কার্যত কোনো সেবাই দিতে পারেনি সহজ।

ট্রেনের একটি টিকিটের জন্য নেত্রকোনার যাত্রী আবুল হাসনাত সকাল আটটা থেকে দেড় ঘণ্টা ধরে অনলাইনে বসে ছিলেন। টিকিট তো দূরের কথা, সার্ভারেই তিনি ঢুকতে পারেননি। তাঁর মতো আরেক যাত্রী সাইদুর রহমান, যাবেন খুলনায়।সকাল থেকে অনলাইনে টিকিট কাটার চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ার পর তিনি চলে যান কমলাপুরে।

স্টেশনে এসে দেখেন জনসমুদ্র। তাঁর মতো শত শত মানুষ একটি টিকিটের জন্য ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন।টিকিট না পাওয়া নিয়ে যাত্রীদের এসব ক্ষোভের বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিমাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক অসীম কুমার তালুকদার বলেন, ‘অনলাইনে টিকিট পাচ্ছে না, এটা ঠিক।

তবে যার পাওয়ার, তারা কিন্তু পাচ্ছে। সকাল ৮টায় লাখ লাখ মানুষ একসঙ্গে টিকিট কাটার জন্য অনলাইনে প্রবেশ করে। সবাই তো টিকিট পাবে না, এটাই স্বাভাবিক। কারণ, টিকিট আছে ১২-১৩ হাজার।’

টিকিট কাটা নিয়ে এ ধরনের অভিযোগ শুধু যাত্রীদের নয়, রেলের অনেক কর্মকর্তাও তাঁদের ক্ষোভের কথা জানিয়েছেন। তাঁরা বলেছেন, স্বজনপ্রীতি করে সহজ ডটকম লিমিটেডের মতো অদক্ষ প্রতিষ্ঠানকে কাজ দেওয়ায় পুরো টিকিটিং ব্যবস্থায় ধস নেমেছে। এখন অবস্থা এমন হয়েছে যে, টিকিট কাটার চাপ বাড়লেই সার্ভার ডাউন হয়ে টিকিট বিক্রি বন্ধ হয়ে যাচ্ছে।

যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দুই দিন ধরে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট দেওয়া হচ্ছে অনলাইনে। কিন্তু টিকিট ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যাত্রীরা ওয়েবসাইটে ঢুকে টিকিট কাটতে পারেননি। গতকাল স্টেশনে টিকিট কাটতে আসা বেশির ভাগ যাত্রীই অনলাইনে টিকিট না পাওয়ার অভিযোগ করেছেন।

এই অভিযোগ শুধু অনলাইনে নয়, স্টেশনের কাউন্টারেও মাঝে মাঝে অজানা কারণে সার্ভার ডাউন হয়ে যাচ্ছে। আর সার্ভার ডাউন হলেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে টিকিট কেনাবেচা।যদিও অনলাইনে টিকিটের জটিলতা নিয়ে সহজের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘প্রতি মিনিটে ১০ লাখ মানুষ অনলাইনে টিকিটের জন্য ঢুকছে। কিন্তু তাদের সাইটে প্রতি মিনিটে দেড় থেকে দুই লাখ মানুষ একসঙ্গে ওয়েবসাইটে ঢুকে টিকিট কাটতে পারবেন। সে কারণেই জটিলতা হচ্ছে।

জানতে চাইলে তথ্যপ্রযুক্তিবিদ জাকারিয়া স্বপন বলেন, ‘সহজের ওয়েবসাইটে মানুষ ঢুকতে পারছে না, সেটা দিনের আলোর মতো পরিষ্কার। এটি গোপন রাখার কিছু নেই। তারা টেকনিক্যালি বিষয়টি সমাধান করতে পারেনি।

সহজ পুরো দেশকে বোকা বানানোর চেষ্টা করছে। তাদের সিস্টেম যে কাজ করছে না, সেটা অকপটে স্বীকার করা উচিত। তাদের ওয়েবসাইট ট্রেনের টিকিট বিক্রির জন্য যথেষ্ট নয়, এটা নতুন করে ডিজাইন করা উচিত।’