প্রচ্ছদ বাংলাদেশ বিভাগ

বিএসএফের ছোঁড়া পাথরের আঘাতে প্রান গেল বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীর

12
বিএসএফের ছোঁড়া পাথরের আঘাতে প্রান গেল বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীর

পড়া যাবে: < 1 minute

বিএসএফের ছোঁড়া পাথরের আঘাতে প্রান গেল বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ীর

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি:

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার রত্নাই সীমান্তের নাগর নদী থেকে মো. মামুন (২১) নামের এক বাংলাদেশির মৃতদেহ উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা।

সোমবার সকালে মরাধর গ্রামের পশ্চিম পাশে ৩৮২(৩)এস পিলার এলাকায় নাগর নদীতে লাশটি ভেসে উঠলে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়।

বিএসএফের ছোঁড়া পাথরের আঘাতে ওই যুবকের মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছেন ওই উপজেলার আমজানখোর ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আকালু।

নিহত মামুন ওই উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের ঠকবস্তি পশ্চিম হরিনমারি এলাকার সাদেক আলীর ছেলে ও ইউপি সদস্য শামসুল আলমের নাতি।

সোমবার সকালে স্থানীয়রা রত্নাই সীমান্তের নাগর নদীতে মামুনের মৃতদেহ দেখতে পেয়ে বিজিবি ও পুলিশকে খবর দেয়। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে পুলিশ।

আরও পড়ুন:  ওষুধ পাচারকারী চক্রের হোতা রিমান্ডে

ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আকালু জানান, রবিবার দিবাগত রাতে রত্নাই সীমান্তের ৩৮২(৪) এস পিলারের দক্ষিণ শেষ প্রান্তে ভারতীয় আয়রন ব্রিজের নিচ দিয়ে গরু আনছিলেন মামুনসহ কয়েকজন। এ সময় বিএসএফ সদস্যরা তাদের ওপর পাথর ছুড়ে মারে। এতে পাথরের আঘাতে আল-মামুন মারা যান।

আহত হন আরও দুইজন আহত হন। আহতরা পালিয়ে আসেন।

ঠাকুরগাঁও ৫০ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল শহিদুল ইসলাম জানান, রত্নাই সীমান্তের মরাধর গ্রামের পশ্চিম পাশে নাগর নদীতে একজনের মরদেহ ভেসে উঠেছে। বিজিবি জোয়ানদের ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

আরও পড়ুন:  থানা ভাঙচুর, জামিন নিতে গিয়ে দুই সরকারি কর্মচারীসহ গ্রেপ্তার ৩

প্রিয় পাঠক, স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, [email protected] ঠিকানায়। অথবা যুক্ত হতে পারেন @banglanewsmagazine আমাদের ফেসবুক পেজে। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

  • 5
    Shares