ভারত জুন মাসে অত্যাধুনিক এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করবেঃপেন্টাগন

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ১ মাস আগে

জুন মাসের মধ্যেই রাশিয়ার তৈরি অত্যাধুনিক এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করতে চলেছে ভারত। মার্কিন কংগ্রেসের এক শুনানিতে পেন্টাগনের এক শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট জেনারেল স্কট বেরিয়ার সম্প্রতি এ কথা বলেন। চীন ও পাকিস্তানের হুমকি মোকাবেলায় জল, স্থল ও আকাশে সামরিক বাহিনীর ব্যাপক আধুনিকায়ন প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে রাশিয়ার এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা সংগ্রহ করেছে ভারত।

জেনারেল বেরিয়ার জানান, গত বছরের অক্টোবর নাগাদ ভারতের সামরিক বাহিনী স্থল ও সমুদ্র সীমানা সুরক্ষিত করার জন্য উন্নত নজরদারি ব্যবস্থা খোঁজার পাশাপাশি আক্রমণাত্মক ও প্রতিরক্ষামূলক সাইবার সক্ষমতা বাড়ানোর উপায় খুঁজছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের সশস্ত্র বাহিনী বিষয়ক কমিটির সদস্যদের সামনে এক সাম্প্রতিক শুনানিতে প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা সংস্থার পরিচালক লেফটেন্যান্ট জেনারেল স্কট বেরিয়ার বলেন, ভারত গত বছরের ডিসেম্বর থেকে রাশিয়ার এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণ শুরু করেছে।

শুনানিতে বেরিয়ার আরো বলেন, ‘গত ডিসেম্বরে ভারত এস-৪০০ আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার প্রাথমিক চালান সংগ্রহ করেছে। দেশটি চীন ও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষা জোরদার করতে ২০২২-এর জুন নাগাদ ব্যবস্থাগুলো কার্যকর করতে আগ্রহী। ’

লেফটেন্যান্ট জেনারেল স্কট বেরিয়ার আরো বলেন, ভারত সমন্বিত কমান্ডের উন্নতি করছে, যা তাদের তিন বাহিনীর যৌথ সক্ষমতা বাড়িয়ে তুলবে।ওই মার্কিন নিরাপত্তা কর্মকর্তার মতে, ভারত গত বছরজুড়ে ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলে একটি নেতৃস্থানীয় শক্তি ও এ অঞ্চলে নিরাপত্তা নিশ্চিতকারী হিসেবে নিজের ভূমিকা তুলে ধরতে সহায়ক পররাষ্ট্রনীতি বাস্তবায়নে কাজ করেছে।

২০১৯ সাল থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রতিরক্ষা খাতে অভ্যন্তরীণ শিল্পের বিকাশ ঘটানোর পাশাপাশি বিদেশি প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম কেনা কমানোর ওপর জোর দিচ্ছেন। এ প্রসঙ্গ তুলে বেরিয়ার আরো বলেন, অভ্যন্তরীণ প্রতিরক্ষা উত্পাদনের ওপর জোর দিয়ে ভারত স্থল, নৌ, আকাশ এবং কৌশলগত পরমাণু বাহিনীকে অন্তর্ভুক্ত করে প্রতিরক্ষাব্যবস্থা আধুনিক করার বিস্তৃত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।