এক্সক্লুসিভনীলফামারীবাংলাদেশরংপুরসামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম

টিকটকের ভিডিও ধারণ করতে গিয়ে সেতু থেকে লাফ দেওয়ার পর মারা গেছে এক কিশোর

‘আমি মরলে কেউ কাইন্দো না, কেউ তো কারও নয় রে ভাই’, এ গানটি দিয়ে টিকটকের ভিডিও ধারণ করতে গিয়ে সেতু থেকে লাফ দেওয়ার পর মারা গেছে মোস্তাকিম (১৬) নামের এক কিশোর। আজ শুক্রবার সকালে সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ি ইউনিয়নের চান্দিয়ারডাঙ্গা সেতুতে এ ঘটনা ঘটে। সে ওই এলাকার মন্টু ইসলামের ছেলে।

সৈয়দপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সাহিদুর রহমান জানান, লাশের সুরতহাল প্রতিবেদন করা হয়েছে। টিকটকের ভিডিও করতে সেতু থেকে মাথা নিচু করে লাফ দিলে পানির নিচে থাকা পাথরের আঘাত মাথায় লাগে তার।সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল হাসানাত খান বলেন, কোনো অভিযোগ না থাকায় অপমৃত্যুর মামলা শেষে মোস্তাকিমের মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।  

সৈয়দপুর থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা যায়, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে খড় খড়িয়া নদীর ওই সেতুর ওপর থেকে টিকটকের ভিডিও ধারণ করতে মাথা নিচু করে নদীতে লাফ দেয় মোস্তাকিম। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই সে ডুবে গেলে বন্ধুদের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন নদীতে নেমে তাকে খোঁজাখুজি শুরু করেন।

পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সেতু থেকে ১০০ মিটার দূর থেকে মোস্তাকিমকে উদ্ধার করেন।সৈয়দপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার খুরশিদ আলম বলেন, ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা মোস্তাকিমকে উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button