বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশের স্ত্রীর জামিন আবেদন নামঞ্জুর

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ১ মাস আগে

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় কক্সবাজারের টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশের স্ত্রী চুমকি কারনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ সোমবার চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ আদালতের বিচারক মুনসি আবদুল মজিদ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।

জানা যায়, ২০২০ সালের ২৩ আগস্ট দুদক চট্টগ্রাম সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন বাদী হয়ে প্রদীপ ও তাঁর স্ত্রী চুমকি কারনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।গত বছরের ২৬ জুলাই দুর্নীতির মাধ্যমে সম্পত্তি অর্জনের মামলায় প্রদীপ ও তাঁর স্ত্রীর বিরুদ্ধে আদালতে দুদক অভিযোগপত্র দেয়। একই বছরের ১৫ ডিসেম্বর আদালতে অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচার শুরু হয়। বর্তমানে মামলাটির সাক্ষ্য গ্রহণ চলছে।

২০২০ সালের ৩১ জুলাই টেকনাফের বাহারছড়া তল্লাশিচৌকিতে পুলিশের গুলিতে নিহত সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খানের মামলায় প্রদীপসহ দুজনকে মৃত্যুদণ্ড ও ছয়জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন আদালত।

গত ৩১ জানুয়ারি এই রায় দেন কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালত।জানা যায়, ২০২০ সালের ২৩ আগস্ট দুদক চট্টগ্রাম সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন বাদী হয়ে প্রদীপ ও তাঁর স্ত্রী চুমকি কারনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

দুদকের আইনজীবী মাহমুদুল হক বলেন, শুরু থেকে পলাতক ছিলেন প্রদীপের স্ত্রী চুমকি। পরে আদালত তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করলেও তাঁর খোঁজ পাওয়া যায়নি। আজ আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন চুমকি। একই সঙ্গে জামিনের আবেদন করেন।

দুদকের পক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়। শুনানি শেষে আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে দেন।মাহমুদুল হক আরও বলেন, আজ এই মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণের ধার্য দিন। চুমকির জামিন আবেদনের শুনানির পর সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়। এটি শেষ হওয়ার পর চুমকিকে কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।