আগামীকাল রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি হতে পারে

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ১ মাস আগে

বাংলাদেশের দিকে একটি বিশাল মেঘমালা ধেয়ে আসছে। এর অগ্রভাগ দেশের উপকূলসহ বিস্তীর্ণ এলাকায় ছড়িয়ে পড়েছে। এর প্রভাবে দেশের উপকূলীয় এলাকায় ভারী বৃষ্টি শুরু হয়েছে। আগামীকাল রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি আরও বাড়তে পারে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে এমনটা বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ দেশে সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে নোয়াখালীর হাতিয়ায়—৭৫ মিলিমিটার। এ ছাড়া রাজধানীতে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ৩১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।এদিকে ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য বলছে, ইতিমধ্যে বাংলাদেশ, ভারতের কেরালাসহ দক্ষিণ উপকূলে মৌসুমি বায়ু বয়ে যাচ্ছে। এটি দু-এক দিনের মধ্যে ভারতের ওডিশা, আসাম ও পশ্চিমবঙ্গে চলে আসতে পারে। ফলে বাংলাদেশের উজানের এলাকায় ভারী বৃষ্টি শুরু হতে পারে।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ শাহনাজ সুলতানা বলেন, গভীর সঞ্চারণশীল ওই মেঘমালার পেছনেই মৌসুমি বায়ু অবস্থান করছে। ওই বায়ু বাংলাদেশের ওপর ছড়িয়ে পড়ায় উপকূলসহ দেশের বেশির ভাগ এলাকায় আগামীকাল ভারী বৃষ্টি শুরু হতে পারে। এরপর দু-এক দিন বিরতি দিয়ে মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। ফলে দেশের বিভিন্ন স্থানে আগামী কয়েক দিন বৃষ্টি চলতে পারে। দেশের বন্দরগুলোকে ৩ নম্বর সতর্কসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে আরও বলা হয়েছে, গভীর সঞ্চারণশীল মেঘমালার প্রভাবে বঙ্গোপসাগর উত্তাল হয়ে আছে। এ জন্য চট্টগ্রাম, মোংলা ও পায়রা বন্দর এবং কক্সবাজার উপকূলকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নৌযানগুলোকে সাবধানে ও উপকূলের কাছাকাছি অবস্থান করতে বলা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত গভীর সমুদ্রে না যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।