রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকায় বজ্রপাতে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ৪ সপ্তাহ আগে

রাজধানীর বিমানবন্দর এলাকায় বজ্রপাতে রাহাত আহমেদ বাধন (১৮) নামে এক কলেজছাত্র মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বিমানবন্দর সিভিল অ্যাভিয়েশন ট্রান্সমিটার মাঠে এ ঘটনাটি ঘটে। মুমূর্ষু অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসক রাত সাড়ে ৮টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

সে বিকেলে বিমানবন্দর সিভিল অ্যাভিয়েশন মাঠে বন্ধুদের সঙ্গে ফুটবল খেলতে যায়। কিন্তু ফুটবল না খেলে একটি গাছে বসে খেলা দেখছিল। এ সময় হঠাৎ বজ্রপাত হয়। বন্ধুরা সব মাঠে শুয়ে পড়ে। কিছুক্ষণ পরে বন্ধুরা বাধনের কাছে গিয়ে দেখে তিনি অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে।

দ্রুত তাঁকে উত্তরা বাংলাদেশ মেডিকেলে নিয়ে যায়। সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (পরিদর্শক) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।

মৃত বাধনের ভাই রাকিব হাসান বলেন, তাঁদের বাড়ি কুমিল্লা জেলার লাঙ্গলকোর্ট থানার বামভুইয়া পাড়া গ্রামে। বাবার নাম মো. নুরুন্নবীর। বর্তমানে কাওলা মধ্য পাপাড়া এলাকায় থাকেন। বাধন উত্তরা কমার্স কলেজে একাদশ দ্বিতীয় বর্ষে পড়াশোনা করত। তিন ভাইয়ের মধ্যে বাধন ছোট।