কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্র প্রধান ফটকে গাঁজাসহ আটক

কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্র প্রধান ফটকে গাঁজাসহ আটক

গাঁজা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুজন ছাত্র ক্যাম্পাসের ভেতরে যাচ্ছিলেন। প্রধান ফটকের পাশে ছাত্রী ছাউনির কাছে তাঁদের আটকায় পুলিশ। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির উপস্থিতিতে দুজনের দেহতল্লাশি করে ২৫ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

পরে ওই দুই ছাত্রের নামে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে পুলিশ। শুক্রবার বেলা তিনটার দিকে কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের পাশে এই ঘটনা ঘটে। সন্ধ্যায় আদালতের মাধ্যমে দুই ছাত্রকে কুষ্টিয়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, দুই শিক্ষার্থীকে পুলিশ ক্যাম্পাসের বাইরে থেকে আটক করেছে। তাঁদের ছেড়ে দেওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে সুপারিশ এসেছে। তবে পুলিশকে আইনে যেভাবে আছে, সেভাবে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। মাদকের বিষয়ে কোনো ছাড় নেই।

বিশ্ববিদ্যালয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দুপুরে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থানা-পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে দুজন শিক্ষার্থী কুষ্টিয়া সদর উপজেলার শান্তিডাঙা গ্রামের মাদক ব্যবসায়ী বাবুলের কাছ থেকে ২৫ গ্রাম গাঁজা নিয়ে ক্যাম্পাসের ভেতরে প্রবেশ করতে যাচ্ছেন।

পরে পুলিশ ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকের পাশে মহাসড়কের যাত্রী ছাউনির কাছে অবস্থান নিয়ে দুজনের কাছ থেকে ২৫ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করে। এ ঘটনায় স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী বাবুলকে প্রধান আসামি করে মামলা করা হয়েছে। মামলায় দুই ছাত্রকে মাদকের ক্রেতা হিসেবে উল্লেখ করে গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।