তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে গণপিটুনি

লেখক: বাংলা ম্যাগাজিন
প্রকাশ: ১ সপ্তাহ আগে

মিড ডে মিল দেয়ার নাম করে তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে ‘প্রেমের প্রস্তাব’ দেওয়ার ঘটনায় স্কুলের এক শিক্ষককে বেধড়ক গণধোলাই দিয়েছে এলাকাবাসী। নাবালিকা ওই ছাত্রীর মুখে ঘটনার বিবরণ শুনে অভিযুক্ত ওই শিক্ষককে মারপিট করা হয়। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের বাঁকুড়ার কোতলপুরে।

জানা যায়, গ্রীষ্মাবকাশের মধ্যেই গত মঙ্গলবার ওই শিক্ষক মিড ডে মিলের খাবার বিলি করতে স্কুলে আসেন। সমস্ত ছাত্র ছাত্রীকে ছেড়ে দিলেও তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রীকে তিনি আটকে রাখেন। এমনকি তার সঙ্গে অসভ্য আচরণ করার পাশাপাশি ‘প্রেম করার’ প্রস্তাব দেন বলেও অভিযোগ। বুধবার ফের ওই শিক্ষক স্কুলে গেলে গ্রামবাসী আটকে রেখে বেধড়ক মারধর করে। পরে তার মোটরসাইকেলটিও ভাঙচুর করা হয়।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এই সময়ের খবরে বলা হয়, অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নাম মুরুলী মোহন মণ্ডল। বুধবার গ্রামের মানুষ ও অভিভাবকরা ওই শিক্ষককে আটকে রেখে বেধড়ক মারধর করে। পরে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে গিয়ে বিক্ষুব্ধ জনতার হাত থেকে অভিযুক্তকে উদ্ধার করে। বর্তমানে অভিযুক্ত শিক্ষক কোতলপুর গ্রামীণ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ভুক্তভোগী নাবালিকার মা বলেন, সকাল ৯টার সময় সব ছাত্র-ছাত্রীকে চাল, আলু দিয়ে ছেড়ে দিয়েছিল। কিন্তু আমার মেয়েকে ছাড়েনি। দুপুর ১২টা পর্যন্ত ওকে বসিয়ে রেখে দিয়েছিল। বাড়ি ফিরে মেয়ে কান্নাকাটি করছিল। তখন মেয়েকে জিজ্ঞাসাবাদ করায় জানতে পারি, ওকে ওই শিক্ষক বাজে বাজে কথা বলেছে।