প্রথম মুসলিম হিজাবধারী ফাতিমা অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন

প্রথম মুসলিম হিজাবধারী ফাতিমা অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন

মাত্র ২৭ বছর বয়সে অস্ট্রেলিয়ার সিনেটর নির্বাচিত হয়েছেন ফাতিমা পেমান। তিনি অস্ট্রেলিয়ার ইতিহাসে তৃতীয় কনিষ্ঠতম সিনেটর। ২৭ বছর ফাতিমাই হতে যাচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার সিনেটে প্রথম হিজাবধারী মুসলিম নারী। তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী অ্যান্থনি অ্যালবানিজ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান এ তথ্য জানিয়েছে।

হিজাব পরার বিষয়টিকে অস্ট্রেলিয়ার সংস্কৃতিতে স্বাভাবিক করতে কাজ করতে চান ফাতিমা। তিনি বলেন, ‌‘আমি তরুণ অস্ট্রেলিয়ানদের অনুপ্রেরণা হতে চাই। ধর্মীয় বিশ্বাস, আমাদের দেখতে কেমন দেখায় তা কখনই গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানে দায়িত্ব পালনে বাধা হতে পারে না।’

জুলাইয়ে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া থেকে নির্বাচিত এ সিনেটর। ফাতিমা বলেন, ‘সোমবার চূড়ান্ত ফল আসার পর ফাতিমা বলেন, আমি আফগান ও মুসলিম। তবে সেই পরিচয়ের আগে আমি একজন অস্ট্রেলিয়ান লেবার সিনেটর। আমি বিশ্বাস, সাংস্কৃতিক পরিচয়, লিঙ্গ, বয়স ইত্যাদি পরিচয়ের ঊর্ধ্বে উঠে সব অস্ট্রেলিয়ান নাগরিকের প্রতিনিধিত্ব করছি।’ 

উল্লেখ্য, ফাতিমা পেমান আট বছর বয়সে পরিবারের সাথে অভিবাসী হিসেবে অস্ট্রেলিয়ায় এসেছিলেন। সেখানেই তিনি উচ্চ শিক্ষা লাভ করেন। পরে রাজনৈতিক দল লেবার পার্টিতে যোগ দেন।তার বাবা, যিনি শরণার্থী হিসাবে অস্ট্রেলিয়ায় আসার পরে রান্নাঘরের হাত, একজন নিরাপত্তা প্রহরী এবং একজন ট্যাক্সি ড্রাইভার হিসাবে কাজ করেছিলেন, তিনি তার মধ্যে কঠোর পরিশ্রম এবং অধ্যবসায়ের মূল্যবোধ তৈরি করেছিলেন এবং তিনি কঠোর প্রতিনিধিত্ব করতে সক্ষম হতে চান। 

তিনি তার বাবার মতো অস্ট্রেলিয়ায় কর্মরত থাকতে চান।ইউনাইটেড ওয়ার্কার্স ইউনিয়নে সংগঠক হিসেবে পেম্যানের পেশাগত পটভূমি রয়েছে।