ভিন্ন স্বাদের খবর

প্রায় ছয় কোটি টাকার সৌদি রিয়াল ফেলে পালিয়ে গেলেন যাত্রী

রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ২২ লাখ ৯৯ হাজার ৫০০ সৌদি রিয়াল জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর এবং ঢাকা কাস্টম হাউস প্রিভেন্টিভ টিম। তবে যে যাত্রীর ব্যাগে এই রিয়াল ছিল তাঁকে ধরতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। ওই যাত্রী ইমিগ্রেশন না করেই বিমানবন্দর ছেড়ে চলে যান।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের উপপরিচালক আহমেদুর রেজা চৌধুরী বলেন, ‘গতকাল রাত সাড়ে নয়টার দিকে এমিরেটস এয়ারলাইনসের চেক হচ্ছিল। সে সময় ফ্লাইটের প্যাসেঞ্জারস হোল্ড ব্যাগেজ স্ক্রিনিং রুমের স্ক্যানিং মেশিনে লাগেজটি স্ক্যান করা হলে মুদ্রা সদৃশ বস্তুর অস্তিত্ব পাওয়া যায়।

লাগেজটির মালিককে খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি।’ পরে বিমানবন্দরে দায়িত্বরত বিভিন্ন সংস্থা ও অ্যাভিয়েশন সিকিউরিটির উপস্থিতিতে লাগেজটি কাস্টমস হলে এনে খোলা হয় বলে তিনি জানান।গতকাল বুধবার রাতে মামুন খান নামের এক যাত্রীর ব্যাগ স্ক্যান করার সময় সৌদি রিয়াল জব্দ করা হয়। তিনি এমিরেটস এয়ারলাইনসের (EK 585) ফ্লাইটে দুবাই যাওয়ার জন্য চেকইন করেন।

লাগেজে থাকা ৩৪টি শার্টের ভেতরের কাগজের বোর্ডের মধ্য কাগুজে মুদ্রাগুলো বিশেষ কায়দায় লুকায়িত অবস্থায় রাখা ছিল বলে জানান শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের উপপরিচালক। তিনি আরও বলেন, ‘যাত্রীকে খুঁজে না পাওয়ায় লাগেজের সঙ্গে থাকা ট্যাগ থেকে এমিরেটস কাউন্টার, ইমিগ্রেশন ও অ্যাভিয়েশন সিকিউরিটির সহায়তায় যাত্রীর বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায়।’

জব্দকৃত বৈদেশিক মুদ্রা কাস্টমস গুদামে জমা দেওয়া হবে।কাস্টমস অ্যাক্ট ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামুনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান কাস্টমস গোয়েন্দার এ কর্মকর্তা।ইমিগ্রেশন শেষ না করেই মামুনের বিমানবন্দর থেকে চলে যাওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে উপপরিচালক বলেন, জব্দকৃত বৈদেশিক মুদ্রা ও লাগেজ ট্যাগের সঙ্গে থাকা তথ্যের ভিত্তিতে বর্ণিত যাত্রীর বিরুদ্ধে বিমানবন্দর থানায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button