ভিন্ন স্বাদের খবর

স্কুলছাত্রীর গোসলের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ায় আত্মহত্যার চেষ্টা

নিজের বাড়িতে গোসল করছিল নবম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী। গোপনে সেই ভিডিও ধারণ করে ছড়িয়ে দেওয়া হয় ফেসবুকে। সেই ভিডিও দেখে লজ্জায় আত্মহত্যার চেষ্টা করে সাতক্ষীরার শ্যামনগরের ওই ছাত্রী। আজ বৃহস্পতিবার সকালে শোয়ার ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে সে। তবে পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করেছে। সংকটাপন্ন অবস্থায় তাকে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা বলেন, গত ৯ জুন রাস্তায় তার মেয়েকে মারধর করে মুঠোফোন ছিনিয়ে নেয় আল আমিন। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৬ জুন তিনি নিজে বাদী হয়ে মেয়েকে উত্ত্যক্ত ও মারধরের ঘটনায় অভিযুক্ত তরুণকে আসামি করে শ্যামনগর থানায় মামলা করেন।

মামলা দায়েরের ঘটনায় ক্ষুব্ধ আল আমিন গত ৫ জুলাই একাধিক ‘ভুয়া’ ফেসবুক আইডি থেকে ভুক্তভোগী ছাত্রীর গোসলের আগ-মুহূর্তের ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করেন। এ ঘটনার তিন দিন আগে মামলা প্রত্যাহার করা না হলে গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা তার মেয়ের গোসলের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন ওই তরুণ।

জানা যায়, গোসলের ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার পর ওই স্কুলছাত্রীর বাবাকে হত্যার হুমকি দেন আল আমিন (১৮) নামের এক তরুণ। গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা আরও ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ারও হুমকি দেন তিনি। এর জের ধরে ওই স্কুলছাত্রী আত্মহত্যার চেষ্টা করে বলে পরিবারের দাবি।অভিযুক্ত আল আমিন শ্যামনগর উপজেলার কাশিমাড়ী গ্রামের বাসিন্দা। তিনি গোবিন্দপুর কলেজিয়েট স্কুলের উচ্চ মাধ্যমিকের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

আল আমিনের বাবা বলেন, মামলা হওয়ার পর বাড়ি থেকে পালিয়ে যান আল আমিন। পরিবারের কারও সঙ্গে যোগাযোগ করছে না। তিনি অনুরোধ করেন বিষয়টি মিটমাটের জন্য মেয়ের পরিবারকে বোঝাতে।উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক মিলন হোসেন বলেন, গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করা কিশোরী এখন অনেকটা শঙ্কামুক্ত।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর ভগ্নিপতি অভিযোগ করেন, আল আমিন কৌশলে গোপন ক্যামেরায় কিশোরীর গোসলের দৃশ্য ভিডিও ধারণ করে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়েছেন। আবার গতকাল বুধবার বিকেলে আল আমিনের মা তরুণীকে ডেকে এনে মামলা প্রত্যাহার করা না হলে গোপন ক্যামেরায় ধারণ করা আরও অসংখ্য নগ্ন ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন।

এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আজ সকালে ওই তরুণী শোয়ার ঘরের দরজা-জানালা লাগিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।অভিযুক্ত আল আমিনের সঙ্গে কথা বলার জন্য একাধিকবার চেষ্টা করলেও তার মুঠোফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শ্যামনগর থানার উপপরিদর্শক জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ‘অবস্থান ট্রেস করতে না পারায় আসামিকে ধরা যাচ্ছে না। তবে তাকে গ্রেপ্তারের জন্য সোর্স চেষ্টা করছে।’পুলিশের এই কর্মকর্তা জানান, আত্মহত্যার চেষ্টা একটি অপরাধ। ছাত্রীর নগ্ন ভিডিও ফেসবুকে দেওয়ার ঘটনায় তার পরিবার চাইলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে পৃথক মামলা করতে পারে।

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button