অপরাধঅর্থ ও বাণিজ্যএক্সক্লুসিভএশিয়াবিশ্ব সংবাদ

কংগ্রেসের বিধায়কের গাড়ি থেকে উদ্ধার বান্ডিল বান্ডিল রুপি

পশ্চিমবঙ্গের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেস নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ অর্পিতা চ্যাটার্জির ফ্লাট থেকে প্রায় পঞ্চাশ কোটি রুপি উদ্ধারের পর এবার কংগ্রেসের বিধায়কের গাড়ি থেকে উদ্ধার বান্ডিল বান্ডিল রুপি। রুপির সঠিক পরিমাণ নিশ্চিত হতে ইতোমধ্যেই ক্যাশ কাউন্টিং মেশিন আনা হয়েছে। চলছে গণনা।

পুলিশ সূত্রে খবর, মোট পাঁচজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পাঁচজনের মধ্যে তিনজন কংগ্রেসের বিধায়ক আছেন। তিন কংগ্রেস বিধায়ক হলেন রাজেশ কাশ্যপ, নমন দীক্ষিত এবং ইরফান আনসারী। জানা গেছে, ওই গাড়িটি জামতারার কংগ্রেস ইরফান আনসারীর।যদিও বিপুল পরিমাণ রুপির সাপেক্ষে তারা কোনো নথিপত্র দেখাতে পারেননি। এই বিপুল রুপির উৎস কী? কোথা থেকে এই রুপি আসছিল, কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল, তা সবটাই খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

পশ্চিমবঙ্গের পার্শ্ববর্তী রাজ্য ঝাড়খণ্ডের বিধায়কের বোর্ড লাগানো গাড়ি থেকে উদ্ধার কয়েক লাখ রুপি। শনিবার বিকালে পশ্চিমবঙ্গের হাওড়ার কাছে ১৬ নং জাতীয় সড়কে রানিহাটি মোড়ে এই বোর্ড লাগানো কোলাঘাটমুখী গাড়িটিকে আটকায় রাজ্য পুলিশের সদস্যরা। গাড়িটিকে ঘিরে ফেলা হয়। এরপর পুলিশ কর্মীরা কালো রংয়ের ওই গাড়ির পেছনের ডিকি খুলতেই দেখা যায় বান্ডিল বান্ডিল রুপি, যা দেখে অনুমান- ওই রুপির আনুমানিক পরিমাণ প্রায় এক কোটির কাছাকাছি।

রাজ্য থেকে রুপি পাচার করার খবর আগে থেকেই ছিল পুলিশের কাছে। সূত্র মারফত সেই খবর পেয়ে এদিন বিকালে মুম্বাই রোডে ওই কালো রঙের ফরচুনা গাড়িটির সন্ধানে ওত পেতেছিল পুলিশ। অবশেষে রানিহাটি মোড়ে গাড়িটি আসতেই গাড়িটিকে আটকানো হয় এবং তারপরেই শুরু হয় তল্লাশি। দেখা যায় গাড়ির পেছনে রয়েছে কাঁড়িকাঁড়ি রুপির বান্ডিল।ইতোমধ্যেই ওই গাড়িটি এবং বিধায়কদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে পাঁচলা থানায়। তিন বিভাগকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে জেলা পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা। 

পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গত ২৩ জুলাই ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ইডির হাতে গ্রেফতার হন রাজ্যটির সাবেক শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। একই ইস্যুতে গ্রেফতার হয়েছে পার্থ ঘনিষ্ঠ মডেল, অভিনেত্রী অর্পিতা চ্যাটার্জি।

এরপর গত এক সপ্তাহের মধ্যে অর্পিতার টালিগঞ্জ এবং বেলঘড়িয়ার দুটি ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে প্রায় পঞ্চাশ কোটি রুপি উদ্ধার হয়। এ ছাড়া কয়েক কোটি টাকা মূল্যের স্বর্ণের জিনিস, নামেবেনামে সম্পত্তি জমির দলিল, গুরুত্বপূর্ণ নথি তো রয়েছেই। অভিযোগ ওঠার পর ইতোমধ্যেই রাজ্যের মন্ত্রিসভা এবং দলের সব পদ থেকেও বহিষ্কার করা হয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে।

আদালতের নির্দেশে বর্তমানে পার্থ এবং অর্পিতা উভয়ই ইডির হেফাজতে রয়েছেন। আগামী ৩ আগস্ট তাদের কলকাতার ব্যাংকশাল আদালতে তোলা হবে। পার্থ-অর্পিতার রেশ কাটতে না কাটতেই এবার কংগ্রেস বিধায়কের গাড়ি থেকে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ অর্থ। 

এ ব্যাপারে হাওড়া জেলা গ্রামীণের পুলিশ সুপার সাথী ভাঙালিয়া জানান, ‘আগে থেকেই আমাদের কাছে খবর ছিল যে একটি গাড়িতে প্রচুর রুপি যাচ্ছে, সেই তথ্যের ওপর ভিত্তি করে আমরা ওই গাড়িটিকে আটকাই। এই গাড়ির মধ্যে ঝাড়খণ্ডের তিন কংগ্রেস বিধায়ক ছিলেন। ওই গাড়ি থেকে প্রচুর পরিমাণে রুপি উদ্ধার হয়েছে। আর রুপির পরিমাণ এত বেশি যে আমাদের ক্যাশ কাউন্টিং মেশিনের সহায়তা নিতে হচ্ছে।’

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button