প্রচ্ছদ ভিন্ন স্বাদের খবর নায়াগ্রা জলপ্রপাতে তলিয়ে গিয়েও প্রাণে বাঁচলো যুবক!

নায়াগ্রা জলপ্রপাতে তলিয়ে গিয়েও প্রাণে বাঁচলো যুবক!

116
পড়া যাবে: 3 মিনিটে
advertisement

নায়াগ্রা জলপ্রপাতে ১৮৮ ফুট গভীর খাদে তলিয়ে গিয়েও বেঁচে গেছে কানাডার এক যুবক। শুধু জীবিতই নয়, তার শরীরে বড় ধরণের কোনও আঘাতও লাগেনি বলে জানিয়েছে কানাডিয়ান পুলিশ।

advertisement

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, যেভাবে বিশ্বের বৃহত্তম জলপ্রপাতে পড়ে হারিয়ে গিয়েছিলেন ওই যুবক, তাতে তার বেঁচে থাকার কোনও সম্ভাবনাই ছিল না। কিন্তু সবাই দেখল পানিতে তলিয়ে যাওয়ার পরেও ওই যুবক ভেসে উঠেছে এবং জলপ্রপাতের নীচে একটি পাথরের উপরে দিব্যি বসে আছে।

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার ভোর চারটা নাগাদ আচমকাই একটি ‘ডিসট্রেস কল’ আসে তাদের কাছে। জানা যায়, কেউ এক জন নায়াগ্রা জলপ্রপাতের নীচে একটি পাথরের উপরে বসে আছে। তার সাহায্য প্রয়োজন। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ। তাকে উদ্ধারের পর জানা যায়, নায়াগ্রার ওপরে একটি পাথরের উপর দিয়ে হাঁটতে গিয়ে পড়ে যায় সে।

আরও পড়ুন:  নূর চৌধুরীকে বাংলাদেশে ফেরত দিতে কানাডার আশ্বাস

উল্লেখ্য, নায়াগ্রা জলপ্রপাত তিনটি পাশাপাশি অবস্থিত পৃথক জলপ্রপাত নিয়ে গঠিত। এই তিনটি জলপ্রপাতের নাম হর্স শু ফলস বা কানাডা ফলস, আমেরিকান ফলস এবং ব্রাইডাল ভিল ফলস। নায়াগ্রা জলপ্রপাত যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার সীমান্তবর্তী অঞ্চলে অবস্থিত। হর্সশু ফলস এর আকার ঘোড়ার খুড়ের মতো। প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কারণে পর্যটকদের কাছে এটি একটি আকর্ষণীয় স্থান। এই ফলসটি ১৮৮ ফুট উঁচু। ওই যুবক এই হর্স শু ফলস থেকেই নীচে পড়ে গিয়েছিল। পুলিশ জানিয়েছে, নায়াগ্রা ফলসে পড়ে গিয়েও জীবিত থাকার ঘটনা এ নিয়ে মাত্র চারটি।

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সর্বশেষ আপডেট

advertisement