ভিন্ন স্বাদের খবর

ভারতের কেরালায় লটারিতে বাজিমাত, ২৫ কোটি রুপি জিতলেন অটোচালক

আজ রোববার ভারতের কেরালা রাজ্যে এক অটোরিকশা চালকের ভাগ্য বদলেছে লটারি জিতে।লটারিতে ২৫ কোটি রুপি জিতে নিয়েছেন অনুপ। অনুপ শেফ হিসেবে কাজ করার জন্য মালয়েশিয়া যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিলেন।

‘ওনাম বাম্পার লটারি’ জেতা এই অটোরিকশাচালকের নাম অনুপ। তাঁর বাড়ি কেরালার শ্রীবরাহমে। ড্রর আগের দিন শনিবার তিনি লটারিটি কিনেছিলেন।রাঁধুনি হিসেবে কাজ করার জন্য মালয়েশিয়ায় যাওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন অনুপ। এ জন্য তিনি ব্যাংকে তিন লাখ রুপি ঋণের জন্য আবেদন করেছিলেন। তাঁর এই আবেদন অনুমোদিত হওয়ার এক দিন পরই তিনি লটারি জিতলেন।

জানা গেছে, ‘ওনাম বাম্পার লটারি’ নামে ছাড়া লটারি গত শনিবার কেনেন অনুপ। রোববার সেই লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়। অথচ এই লটারি পাওয়ার আগে অনুপ ৩ লাখ রুপি ব্যাংক ঋণ নেওয়ার জন্য আবেদন করেছিলেন।

অনুপ আরও বলেছেন, তিনি ব্যাংক ঋণের জন্য আবেদন করেছিলেন এবং সেখান থেকে তাকে ফোন করা হয়। তিনি আর মালয়েশিয়া যাবেন না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন এবং তার ব্যাংক ঋণেরও প্রয়োজন হবে না।

কেরালার শ্রীবরাহম গ্রামের অনুপের লটারি জেতার খবরে উচ্ছ্বসিত তার স্বজনসহ গ্রামবাসীরা। তবে অনুপের ভাষ্য, এভাবে লটারি জেতার আশা করেননি তিনি।

তিনি আরও জানান, গত ২২ বছর ধরে লটারির টিকিট কিনছেন এবং অতীতে কয়েকশ লটারি থেকে সর্বোচ্চ ৫ হাজার রুপি জিতেছেন।

কর কেটে নেওয়ার পরে অনুপ প্রায় ১৫ কোটি রুপি পাবেন। এই অর্থ দিয়ে কি করবেন, এমন প্রশ্নের জবাবে অনুপ বলেন, প্রথমে তার পরিবারের জন্য একটি বাড়ি তৈরি করবেন তিনি ৷ এরপর তার যত ঋণ আছে সেগুলো পরিশোধ করবেন অনুপ ।

অনুপ বলেন, তিনি লটারি জেতার আশা করেননি। তাই টিভিতে লটারি ড্রয়ের ফলও দেখেনি। কিন্তু তাঁর মুঠোফোনে খুদেবার্তা আসে। তিনি দেখেন, লটারি জিতে গেছেন। ‘আমি বিশ্বাস করতে পারিনি। আমি আমার স্ত্রীকে দেখালাম। তিনিও নিশ্চিত করেন যে আমার কেনা লটারির নম্বরটিই বিজয়ী।’

অনুপ বলেন, তারপরও তিনি চিন্তার মধ্যে ছিলেন। তাই তিনি লটারির টিকিট বিক্রি করেন, এমন এক ব্যক্তিকে ফোন করেন। তাঁকে লটারির টিকিটের একটি ছবি পাঠান। তিনিও নিশ্চিত করেন যে এটাই বিজয়ী নম্বর।

অনুপ বলেন, এ অর্থ থেকে তিনি তাঁর আত্মীয়দের সাহায্য করবেন। কিছু দাতব্য কাজও করবেন। এ ছাড়া কেরালায় হোটেল ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন তিনি। এবং তিনি আরও জানান ‘আমি আবার লটারির টিকিট কিনব।’

বাংলা ম্যাগাজিন /এমএ

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button