কক্সবাজারবাংলাদেশ

র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধ’, ২ জনের মরদেহ উদ্ধার হয়েছে টেকনাফে

আজ সোমবার ভোররাত চারটার দিকে কক্সবাজারের টেকনাফে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়ার ১৪ নম্বর সেতুসংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় নাফ নদীর পাড়ে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মোহাম্মদ মুবিন নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন।

র‌্যাবের দাবি, নিহত যুবক একজন মাদক কারবারি। ঘটনাস্থল থেকে ২ লাখ ২০ হাজার ইয়াবা, ১টি বিদেশি পিস্তল, ম্যাগাজিন ও ৪টি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। আজ সোমবার ভোররাত চারটার দিকে উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের দমদমিয়ার ১৪ নম্বর সেতুসংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।এ ঘটনায় কক্সবাজারের টেকনাফে দুটি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত যুবক মুবিন উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাটাখালীর বাসিন্দা আবদুর রহিমের ছেলে। হোয়াইক্যং ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য জালাল আহমদ তাঁর পরিচয় শনাক্ত করেছেন।

র‌্যাব অধিনায়ক জানান,মাদকের একটি বড় চালান টেকনাফের দমদমিয়া এলাকায় হাত বদল হতে পারে। সেই সূত্র ধরে  মাদক কারবারিদের ধরতে ভোরের দিকে দমদমিয়া এলাকার নাফনদীর পাড়ে র‌্যাবের একটি দল অভিযান চালায়। এসময় র‌্যাবের উপস্থিতি জানতে পেরে কারবারিরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। গুলাগুলি থামলে ঘটনাস্থল হতে আহতাবস্থায় একজনকে উদ্ধার করে। দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক নওশেদ কানন বলেন, ভোররাতে র‍্যাব একজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। হাসপাতালে আনার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। নিহত ব্যক্তির পেট ও বুকে চারটি গুলির চিহ্ন রয়েছে।

টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. হাফিজুর রহমান বলেন, র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত যুবকের লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

এদিকে টেকনাফ পৌরসভার কায়ুকখালী পাড়া খাল থেকে ভাসমান আরও একটি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার পরিচয় পাওয়া যায়নি।

বাংলা ম্যাগাজিন /এমএ

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button