এশিয়াখেলাফুটবলবাংলাদেশ

এশিয়ার চ্যাম্পিয়নশীপ মুকুট বাংলাদেশের নারী ফুটবলারদের

দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটলো।সাফ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের নতুন ইতিহাস গড়লো সাবিনা-কৃষ্ণারা ।স্বাগতিক নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে প্রথমবারের মতো শিরোপা জিতলো গোলাম রাব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। 

কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামের পনের হাজার দর্শক যখন একসঙ্গে চীৎকার করে উঠছিল ‘নেপাল’, ‘নেপাল’ বলে, মনে হচ্ছিল যেন সাগরের গর্জন।গ্যালারিতে ছিল ম্যাক্সিকান ওয়েভ। ভুভুজেলা আর বাদ্যি বাজনার উন্মাদনায় যেন আকাশ ছুঁতে চাইলো নেপালি দর্শকেরা।

নেপালের পতাকা হাতে, ‘নেপাল’ লেখা টি-শার্ট পরে অনেকে ছবি তুললেন গ্যালারিতে। সবার হাতে ধরা মুঠোফোনের আলোয় যেন হাজারো জোনাকি জ্বলে উঠল স্টেডিয়ামে। কিন্তু নেপালিদের এমন উন্মাদনা পরিণত হলো শ্মশানের নীরবতায়। যেন ফুটো বেলুনের মতো চুপসে গেল দর্শকেরা।

এই কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেডিয়ামে প্রথম কোনো আন্তর্জাতিক ট্রফি জিতে ইতিহাস গড়েছিলো বাংলাদেশ। ১৯৯৯ সাউথ এশিয়ান গেমস ফুটবলে নেপালকে হারিয়ে জুয়েল রানার নেতৃত্বে সেই ট্রফি নিয়ে দেশে ফিরেছিলেন জুয়েল রানা-আলফাজরা। ২৩ বছর পর আবার সেই কাঠমান্ডুর দশরথ স্টেয়িামে সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপে স্বাগতিক নেপালকে হারিয়ে নতুন ইতিহাস লিখলো বাংলাদেশ।

এবারের ইতিহাসের রচয়িতা সাবিনা, কৃষ্ণা, মারিয়া, মনিকা, মাসুরা, আখি, তহুরা, রূপনারা। দক্ষিণ এশিয়ার সেরার মঞ্চে নেপালকে ৩-১ গোলে হারিয়ে দেশকে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে বসালেন তারা।

ইতিহাস গড়ার ফাইনালে গোল করেন শামসুন্নাহার,  কৃষ্ণা রানী সরকার ও ঋতুপর্ণা চাকমা। অনিতা গোলে ব্যবধান কমায় নেপাল। টুর্নামেন্টে আট গোল করে সেরার মুকুট পরেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাবিনা খাতুন।

সোমবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকাল সোয়া ৫টায় নেপালের কাঠমান্ডুর দশরথ রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া ফাইনালের প্রথমার্ধে ২-০ গোলে এগিয়ে ছিল লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। তবে বিরতির পর একগোল শোধ করলেও আরও এক গোল জালে পাঠিয়ে ৩-১ ব্যবধানে শিরোপা নিশ্চিত করে বাংলাদেশ।

ফিফা র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে ৪৫ ধাপ এগিয়ে নেপাল। বাংলাদেশের র‌্যাঙ্কিং ১৪৭। নেপালের ১০২। অতীত পরিসংখ্যানও ছিল নেপালের পক্ষে। নেপাল এর আগের ৮ সাক্ষাতে ৬ বার জয় নেপালের। ২ বার ড্র। আর ঘরের মাঠের দর্শকদের গগনবিদারী আওয়াজ তো ছিলই। কিন্তু কোনো কিছুই যেন আটকে রাখতে পারেনি বাংলাদেশের মেয়েদের।

ঢাকা থেকে আসার আগে কোচ গোলাম রব্বানী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, এবার বদলে যাওয়া বাংলাদেশকেই দেখা যাবে। কথা রেখেছেন তিনি। হিমালয় জয় করেই দেশে ফিরছেন বাংলাদেশের মেয়েরা। ১৯৯৯ সালে এই নেপালেই প্রথমবার দক্ষিণ এশিয়ার সেরা হয়ছিল বাংলাদেশ পুরুষ ফুটবল দল, ২২ বছর পর সেই নেপালেই সেরা হলেন মেয়েরা।

বাংলা ম্যাগাজিন /এমএ

বাংলা ম্যাগাজিনে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

Flowers in Chaniaগুগল নিউজ-এ বাংলা ম্যাগাজিনের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।ক্লিক করুন এখানে

Related Articles

Back to top button