প্রচ্ছদ অপরাধ

পরিকল্পিত খু’নি হলেন মাত্র ১৬ বছর বয়সে!

28
পরিকল্পিত খু’নি হলেন মাত্র ১৬ বছর বয়সে!
পড়া যাবে: 2 মিনিটে

চট্টগ্রাম মহানগরীর খুলশী থানার স্কুলছাত্র মো. রাসেল খু’নে’র রহস্য উম্মোচন করেছে পুলিশ। এই ঘটনায় গ্রে’প্তা’র হয়েছে তার বন্ধু মো. হাসানুল করিম। এই হাসান পেশায় ইলেক্ট্রিক মিস্ত্রি। পূর্বে দুজনের মধ্যে ঝ’গ’ড়া হয়েছিল।

সেই বি’রো’ধের জের ধরেই ১৩ বছর বয়স্ক স্কুলছাত্রকে ছু’রি’কা’ঘাত করে হ’ত্যা করে হাসান। সে খুলশী থানার জালালাবাদ হাউজিং সোসাইটির ৪নম্বর রোডের মৃ’ত জয়নাল আবেদীনের ছেলে। আর নি’হ’ত রাসেল ছিল পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া ছাত্র।

বয়সে মাত্র ১৬ বছর হলেও হাসান খু’নে’র ঘটনার আগে পরে যে আচরণ করেছে, তা বিশ্লেষণ করে রীতিমত বিস্মিত হয়েছে পুলিশ। রাসেলকে খু’ন করার জন্য যেই ছুরি সে কিনেছে, সেটি কেনার সময় সঙ্গে নিয়েছিল রাসেলকে।

আর খু’নে’র পর এমন আচরণ করেছে, যাতে পুলিশ শুরুতে সন্দেহই করেনি এই কিশোর তারই বন্ধুকে খু’ন করতে পারে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত অভাবনীয় কাজটিই হয়েছে।

হাসান স্বীকার করেছে, সে রাসেলকে সঙ্গে নিয়ে কেনা ছুরিটি দিয়েই রাসেলকে খু’ন করেছে। আর হ’ত্যা’কাণ্ডের পর স্বাভাবিক ভাবে চলাফেরা করেছে, যাতে কেউ কিছু বুঝতে না পারে।

হ’ত্যা রহস্য উম্মোচন করে বায়েজিদ জোনের সহকারী কমিশনার পরিত্রাণ তালুকদার বলেন, ধৃত হাসান ও স্কুলছাত্র রাসেল দুজনই বন্ধু। বয়সে হাসান তিন বছরের বড়। তাদের মধ্যে কিছুদিন আগে ঝ’গ’ড়া হয়েছিল। পরে তা মিটে যায়। এর জের ধরেই হাসান রাসেলকে খু’ন করে।

আরও পড়ুন:  কুমিল্লায় সন্ত্রা’সীকে অ’স্ত্রসহ গ্রেফ’তার

ক্ষো’ভ থেকেই খু’নে’র সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা আদালতে জানিয়েছে হাসান। গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম আদালতে সো’প’র্দ করার পর পাঁচদিনের ‘রিমা’ন্ড আবেদন জানানো হয়েছে।

সহকারি কমিশনার পরিত্রাণ তালুকদার বলেন, রাসেল খু’ন হওয়ার পর তিন দিন পরিবার তাঁর খোঁজ পায়নি। ম’র’দেহ থেকে গন্ধ বের হলে স্থানীয়দের মাধ্যমে খুলশী থানা পুলিশ অ’ভি’যান চালিয়ে ম’র’দেহ উদ্ধার করে।

খু’নে’র পর হাসান স্বাভাবিক চলাফেরা করেছে। রাসেলকে খোঁজার সময় অন্যদের সঙ্গে হাসানও তাঁকে খুঁজেছে। ফলে তাকে শুরুতে সন্দেহের তালিকায় রাখা হয়নি।

একই বিষয়ে খুলশী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রণব চৌধুরী বলেন, ৩১ জুলাই বিকেলে হাসান নিউমার্কেট যাওয়ার কথা বলে রাসেলকে সঙ্গে নিয়ে বের হয়। সেখানে গিয়ে একটি স্টিলের ছুরি ক্রয় করে। সন্ধ্যায় খুলশী থানার জালালাবাদ এলাকার হাসেম করপোরেশনের পাহাড়ের কাছে গিয়ে রাসেলকে ওই পাহাড়ে উঠার জন্য বলে।

তখন রাসেল পাহাড়ে যেতে রাজি হয়নি। পরক্ষণে হাসান জানায়, সেখানে একটি স্থানে হাসান চার হাজার টাকা লুকিয়ে রেখেছে। সেই টাকা আনতে পাহাড়ে যেতে হবে। এরপর রাসেল হাসানের সঙ্গে পাহাড়ে যায়।

আরও পড়ুন:  নকল মাস্ককাণ্ডে শারমিন জাহানকে ৩ দিনের রিমান্ড

পাহাড়ে যাওয়ার পর কিছুক্ষণ এদিক সেদিক কিছু একটা খোঁজে হাসান। এরপর একটি প্যাকেট দেখতে পায়। সেই প্যাকেটটি তুলতে বলে রাসেলকে। রাসেল প্যাকটটি তুলতে গেলেই রাসেলের পেটে ছু’রি’কাঘাত করে হাসান।

শরীরের কয়েকটি স্থানে ছু’রি’কা’ঘাত করার পর রাসেলকে ঝোঁ’পে ফেলে দিয়ে বাসায় ফিরে হাসান। বাসায় গিয়ে প্যান্ট ও শার্টের র’ক্ত পরিষ্কার করে এবং সেই কাপড় পরিবর্তন করে রাতে ঘুমিয়ে পড়ে। ঈদের পরদিন বন্ধু রাহাতের সঙ্গে হাসানের দেখা হলে রাসেলকে খু’নে’র বিষয়ে খুলে বলে হাসান।

এদিকে কোরবানির ঈদের আগেরদিন থেকে রাসেল নিখোঁজ হওয়ায় তার পরিবার তাকে খোঁজা শুরু করে। কিন্তু কোথায় তাকে পাওয়া যায়নি। পরে থানাকে অবহিত করে।

তিনদিন পর ৩ আগস্ট পাহাড় থেকে ম’র’দেহ উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় রাসেলের বাবা হুমায়ুন কবির বাদী হয়ে হত্যা মা’ম’লা দায়ের করেন। এই মা’ম’লায় হাসানকে ৬ আগস্ট রাতে গ্রে’প্তা’র পুলিশ।

বাংলা ম্যাগাজিন ডেস্ক

বাংলা ম্যাগাজিন /এসপি

সাম্প্রতিক খবর আপনার মুঠোফোনে পেতে এখনি প্লে-স্টোর থেকে Bangla Magazine সার্চ করে ডাউনলোড করুন বাংলাদেশের নাম্বার ওয়ান নিউজ ম্যাগাজিন অ্যাপটি। অথবা ডাউনলোড করতে ক্লিক করুন এখানে। ভালো লাগলে অবশ্যই রেটিং দিয়ে উৎসাহী করুন।

  • 4
    Shares